সীমান্তে বুনোহাতির তান্ডব ১০ বসতঘর তছনছ, আহত ৫

প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা সীমান্তে বুনোহাতি তা-ব চালিয়ে ১০টি বসত ঘর ভেঙ্গে তছনছ করে দিয়েছে। উপজেলার কামালপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী সাতানীপাড়া গ্রামে শনিবার ভোর রাত পর্যন্ত তান্ডব চালায় বুনোহাতির দল। বুনো হাতির তান্ডবে আহত হয়েছেন ৫ জন। গুরুত্বর আহত অবস্থায় নুর জাহান নামে এক নারীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল জানান, ভারত থেকে নেমে আসা বুনোহাতির দল গত বৃহস্পতিবার রাতে সীমান্ত পেড়িয়ে সাতানিপাড়া গ্রামে প্রবেশ করে। এরপর গতকাল শনিবার ভোররাত পর্যন্ত তান্ডব চালায় এ সময় বুনোহাতির দল মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম,স্বাধীন, জরিপ উদ্দিন, মোখলেছুর রহমান, নুরজাহান বেগম, মজল হক, হাফিজুল মিয়া, খাদাল মিয়া ও আছিয়া বেগমের ঘর ভেঙ্গে তছনছ করে দেয়। বুনোহাতির দল ঘরে রক্ষিত সব ধান খেয়ে সাবাড় করে ঘরবাড়ি ভেঙ্গে তছনছ করে দেয়। এ সময় হাতির আক্রমণে মারাত্মক আহত হন নুর জাহান বেগম। তাকে মুমুর্ষূ অবস্থায় বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে চিকৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। আহত আরও চারজন বকশীগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু হাসান সিদ্দিক , বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। একই সঙ্গে স্থানীয় এলাকাবাসীকে হাতির আক্রমণ থেকে রেহাই পেতে সতর্ক করেছেন।

"