প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা

প্রকাশ : ১৩ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

মেহেরপুর প্রতিনিধি

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়া গ্রামে চম্পা খাতুন (২৮) নামের এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বুধবার সকালে নিজ ঘর থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পারিবারিক কলহের জের ধরে আপন দেবর তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন গৃহবধুর পিতা তেরাইল গ্রামের জহির উদ্দীন। নিহত চম্পা খাতুন জোড়পুকুরিয়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী শাহীন উদ্দীনের স্ত্রী। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অষ্টম শ্রেণীতে পড়–য়া পুত্র সন্তান নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করতেন চম্পা খাতুন। তার ছোট দেবর রাহেন উদ্দীনের সঙ্গে পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলছিল। বুধবার সকালে বাড়ির লোকজন তার শয়ন কক্ষ থেকে মরদেহ উদ্ধার করেন। অসুস্থতার কারণে মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার করেন রাহেন উদ্দীন। পরে নিহতের পিতার পরিবার ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের গলায় ফাঁস দেয়ার দাগ দেখতে পান। খবর পেয়ে গাংনী থানা পুলিশের একটি দল মরদেহ হেফাজতে নেয়। চম্পার পিতা জহির উদ্দীন বলেন, সপ্তাহখানেক ধরে দেবরের সঙ্গে তার বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে তাকে স্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

"