মানিকগঞ্জে প্রধান শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম, মামলা

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৭, ০০:০০

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোস্তা দিদার মাহমুদ উচ্চবিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নিয়োগে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও এলাকাবাসীর মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। মাঝে মধ্যে দফায় দফায় চলছে দ-। এসব কারণে স্থানীয় মো.আনিসুর রহমান নামের এক লোক বাদী বিধিবহির্ভূত নিয়োগ বাতিলের দাবিকরে গত ১২ জুন ৭২/২০২৭ ধারায় মানিকগঞ্জ কোর্টে মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার পুটাইল ইউনিয়নের ঘোস্তা দিদার মাহমুদ উচ্চবিদ্যালয়ে একজন প্রধান শিক্ষক নিয়োগগের জন্য ২০১৬ সালের ৭ ডিসেম্বর দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকায় বিঞ্জপ্তি দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তি মোতাবেক মোট ১২ জন প্রার্থীকে ২০১৭ সালের ২৪ মে প্রবেশ পত্র পাঠানো হয়। পরে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পরীক্ষা না নিয়েই ইচ্ছে মত রেজাল্ট সিট তৈরী করে মজিবর রহমাকে সভাপতির মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হয়। এদিকে গত ১৫ জুন বিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ন কাগজ পত্রসহ মজিবর রহমানকে হাতে নাতে আটক করে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে মজিবর রহমান বলেন, সভাপতি সাহেব ২০১৭ সালের ২ জুন তারিখে আমাকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ দিয়েছে। এরপরই আমি ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন নিয়োগ পত্র দেখাতে পারে নি তিনি। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাইদুর রহমান জানান, বিধিবিধান অনুযায়ী মজিবর রহমানকে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। যেহেতু কোর্টে মামলা হয়েছে। জবাব দিতে হলে কোর্টে দিবো। অন্য কারো কাছে কোন জবাব দিবো না। বাবুল হোসেন নামের পরিচালনা কমিটির এক সদস্য বলেন, আমরা সদস্য অথচ প্রধান শিক্ষক নিয়োগ হলো আমরা কেউ জানি না।এ নিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যদের নিয়ে কোন সভা করাও হয়নি।

"