তাড়াশে পাটের দামে কৃষকের সোনালি হাসি

প্রকাশ : ০৫ জুলাই ২০২০, ০০:০০

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে চলতি বছর ২১০ হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ হয়েছে। ফলন ও বাজারে ভালো দাম পেয়ে চাষিদের মুখে ফুটেছে সোনালী হাসি।

তাড়াশ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, এ বছর ২১০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ করা হয়েছে। দেশী ও তোষা জাতের পাট চাষ করা হয়েছে। তবে উচ্চ ফলনশীল তোষা জাতের পাট চাষ হয়েছে বেশি।

সরজমিনে দেখা যায়, উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে পাট কাটা, জাগ দেওয়া, পাটকাঠি থেকে আঁশ ছাড়ানো ও শুকানো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা। নদী-নালা, খাল-বিল ও ডোবাতে পানি থাকায় পাট জাগ দেওয়ায় কোন সমস্যায় পড়তে হয়নি কৃষকদের।

কৃষকেরা জানায়, পাটের ফলন ভাল হলে প্রতিবিঘায় ১০-১২ মণ হয়ে থাকে এবং খারাপ হলে ৭-৮ মণের মতো হয়। গত কয়েক বছর আগে প্রতিমণ পাটের দাম ছিল ১২০০ থেকে ১৮০০ টাকা। এ বছর প্রতিমণ পাট বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার টাকা থেকে ২ হাজার ২০০ টাকা।

উপজেলার নওগাঁ হাটের পাট ব্যবসায়ী আব্দুর রশিদ ও মজিবর রহমান বলেন, এ বছর পাটের ফলন ভাল। বাজারে দামও বেশি। প্রতিমন পাট ২ হাজার থেকে ২২০০ টাকা দরে ক্রয় করছি।

উপজেলার নওগাঁ গ্রামের কৃষক আব্দুল মজিদ ও জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘বিগত বছরের তুলনায় দাম ভালো পেয়েছি। দাম ভালো পাওয়ায় আগামীতেও পাট চাষে কৃষকদের আগ্রহ বাড়বে।’

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ লুৎফুন নাহার লুনা বলেন, ‘এ বছর কৃষকরা পাটের ভালো ফলন পেয়েছে। বাজারে দামও ভালো। কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে কৃষকদের পাট চাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

 

"