সাতক্ষীরায় ব্যবসায়ীর গুদামে মিলল ৫০ টন সরকারি গম

প্রকল্প সভাপতিসহ আটক ৩

প্রকাশ : ২৯ মে ২০২০, ০০:০০

আকরামুল ইসলাম, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার কাবিখা (কাজের বিনিময়ে খাদ্য) প্রকল্পের গম কালীগঞ্জ উপজেলার ব্যবসায়ী আব্দুল গফফারের গুদাম থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত বুধবার রাতে কালীগঞ্জ উপজেলার ভাড়াশিমলা ইউনিয়নের সুলতান এলাকায় ওই ব্যবসায়ীর গোডাউন থেকে ৫০ টন সরকারি গম উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রকল্প সভাপতিসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন প্রকল্প সভাপতি শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পবিত্র কুমার মন্ডল, মনিমুক্তা রাইস মিলের ম্যানেজার মুজাহিদুল ইসলাম ও মনিমুক্তা রাইস মিল মালিকের ছেলে মনিরুজ্জামান মনি।

কালীগঞ্জের মুনিমুক্তা রাইসমিলের মালিক ব্যবসায়ী আব্দুল গফফার জানান, শ্যামনগর উপজেলার মোহাম্মদ আলীর নিকট থেকে ন্যায্যমূল্যে ওই গম ক্রয় করি। বুধবার শ্যামনগরের ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীর গোডাউন থেকে ৫০ টন গম আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিয়ে আসি। পরে পুলিশ গমগুলো জব্দ করে।

শ্যামনগরের সুমি কন্সট্রাকশনের মালিক ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী জানান, ডিও হোল্ডাররা গুদাম থেকে গম উত্তোলন করে মাস্টাররোলের মাধমে শ্রমিকদের কাছে বিলিবিতরণ করেন। তখন শ্রমিকরা গম ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রি করে ওই টাকা নিজেদের অন্য প্রয়োজনে কাজে লাগায়। শ্রমিকরা গম বিক্রি করে চাল-ডাল বা অন্যান্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয় করেন।

তিনি বলেন, এই গমগুলো এমপির মাধ্যমে স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বররা প্রকল্পে কাজে লাগায়। বিভিন্ন সময়ে ক্রয় করতে করতে ৫০ টন হয়েছে। সেগুলো একত্রে আমি কালীগঞ্জের ব্যবসায়ীর নিকট বিক্রি করে দিয়েছি।

প্রকল্প অফিসের ত্রাণের পরিপত্রে বলা আছে, এই প্রকল্পের সভাপতি শতকারা ৭০ ভাগ বিক্রি করে নগদ অর্থ দিয়ে কাজ করতে পারবে। খাদ্য অধিদফতরের চিঠিতে রয়েছে, শ্রমিকদের মাল কোন ব্যবসায়ী কিনতে চাইলে কিনতে পারে। এছাড়া খাদ্য অধিদফতরের সিল মারা থাকলেই বস্তাগুলো খাদ্য অধিদফতরের এমনটা নয়। খাদ্য অধিদফতরের ব্যবহার করা পুরাতন বস্তা বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। চেয়ারম্যান-মেম্বররা বিভিন্ন সময়ে পরিষদে মাল বিলি বিতণের পর বস্তাগুলো বিক্রি করে দেয়।

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ-শ্যামনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় আমরা তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। পাচারকালে গমগুলো জব্দ করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পাচারকালে ৫০ টন সরকারি গম উদ্ধার করা হয়েছে। যা শ্যামনগর থেকে পাচার হয়ে কালীগঞ্জে মজুদ করা হচ্ছিল। এ ব্যাপারে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

 

"