শ্রীপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ১০ সদস্যের অনাস্থা প্রস্তাব

প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

মাগুরা প্রতিনিধি

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ৫নং দারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কাননের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব দিয়েছেন ওই ইউনিয়নের ১০ জন নির্বাচিত সদস্য। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াছিন কবিরের কাছে তারা লিখিত এ অনাস্থা প্রস্তাব প্রদান করেন।

লিখিত অনাস্থা প্রস্তাবে ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কাননের বিরুদ্ধে আটটি অভিযোগ আনা হয়েছে। সেগুলো অভিযোগগুলো হলো ট্যাক্সের টাকা থেকে সম্মানী ভাতা না দিয়ে নিজে আত্মসাৎ, মাসিক সভা না করা, টিআর, কাবিখা, ৪০ দিনের কর্মসূচি, এডিবি ইত্যাদি প্রকল্পের তালিকা সভা না করে নিজে দেওয়া, এলজিএসপির কাজ না করে টাকা আত্মসাৎ, বয়স্ক, বিধবা, পঙ্গু, গর্ভকালীন ভাতা সদস্যদের মাধ্যমে না দিয়ে টাকার বিনিময়ে নিজেই দিয়ে দেন, ইউনিয়ন পরিষদের সকল কাজ কোনো সভা না করে নিজেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক করেন, টাকার বিনিময়ে বয়স্ক ভাতার কার্ড সমাজের বিত্তবানদের প্রদান করেন ও সদস্যদের সঙ্গে অসদাচরণ, ভয়ভীতি প্রদর্শন করে নিজেই সহি সম্পাদন করান।

অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছেন ইউপি সদস্য লাভলু বিশ্বাস, নবুয়ত আলী, মোফাজ্জেল হোসেন, বিল্লাল হোসেন মোল্যা, জামাল বিশ্বাস, ইলিয়াস কাঞ্চন, হামজা, আবু সাইদ, নওশের আলী শেখ ও মমতা সমাদ্দার।

এ বিষয়ে উইপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন বলেন, তাদের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমি বিভিন্ন ভাতার কার্ড বিতরণের আগে মাইকিং করে ইউএনও মহোদয় এবং ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে তালিকা তৈরি করেছি। আমি নিজের জীবন বাজি রেখে জাতির এ ক্রান্তিকালে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে রাত-দিন মানুষের কল্যাণে কাজ করছি। সামনে ইউপি নির্বাচন। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে একটি শ্রেণি।

ইউএনও ইয়াছিন কবীর জানান, ইউপি

সদস্যদের অনাস্থা প্রস্তাবের কপি গ্রহণ

করা হয়েছে। অফিস খোলার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

"