ধান কাটা নিয়ে দুশ্চিন্তায় কামারখন্দের কৃষকরা

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

কামারখন্দ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে সবাইকে ঘরে থাকতে বলেছে সরকার। এমতাবস্থায় বোরো ধান কাটা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার কৃষকরা।

শ্রমিক সংকটে সঠিক সময়ে যদি খেত থেকে ধান না কাটা যায় তাহলে বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন উপজেলার অনেক কৃষক। এদিকে ঘর থেকে বের হতে বা মাঠে কাজ করতে কোনো বাধা নেই বলে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে। তবে করোনার মধ্যে কৃষক ও কৃষি শ্রমিকদের ঝুঁকি এড়াতে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এতে ঘর থেকে বের হলে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে উপজেলার অনেক কৃষকের।

উপজেলার ডিডি শাহবাজপুর গ্রামের কৃষক সেরাজুল সরকার বলেন, এবার আমি কয়েক বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছি। কয়েক দিন পর ধান কাটতে হবে। করোনাভাইরাসের কারণে মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারছে না। কৃষি শ্রমিক ঘর থেকে বের হয়ে মাঠে কাজ করবে তারাও তো করোনা সংক্রমণ ঝুঁকিতে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। করোনার আতঙ্কে যদি শ্রমিক ঘর থেকে না বের হয় তাহলে তো ধান কাটতে পারব না। খেতের ধান খেতেই থাকবে। একই গ্রামের কৃষক ওয়াহাব সরকার বলেন, আমি ঋণ করে ধান চাষ করেছি। শ্রমিকের কারণে খেত থেকে ধান কাটতে না পারলে ঋণ পরিশোধ করতে পারব না। পরিবার নিয়ে না খেয়ে মরতে হবে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার সাদাত বলেন, কৃষক ও কৃষি শ্রমিকদের বাহিরে বের হতে বা অন্য এলাকায় যেতে চাইলে ব্যক্তিগতভাবে সরকারি স্বাস্থ্য বিধি মেনে যেতে পারবে। তারা প্রশাসনের কোনো বাধার মুখে পড়বে না। প্রয়োজনে কৃষি শ্রমিকরা আমার কাছ থেকে প্রত্যায়নপত্র নিয়ে যেতে পারবেন বলে জানান তিনি।

 

"