প্রতিবাদে মানববন্ধন

কাউনিয়ায় যুবককে কুপিয়ে জখম, মামলা

প্রকাশ : ২৬ মার্চ ২০২০, ০০:০০

রংপুর ব্যুরো

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার শিবু কুঠিরপাড় মুচির বাড়ির সামনে হোসেন সরকার নয়ন নামে এক যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনার প্রতিবাদে গত মঙ্গলবার সকালে মানববন্ধন করে নয়নের পরিবার ও এলাকাবাসি। পরিবাবের দাবি তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করে লেডি কোহিনুরগং ও তার সহযোগীরা। নয়ন হরিচরণ লস্কর গ্রামের মৃত মতিয়ার রহমানের ছেলে।

মানববন্ধনে নয়নের বড় ভাই ফকরুল আলম বলেন, ‘আমার ছোট ভাইকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে পঙ্গু করে লেডি কোহিনুরগং ও তার বাহিনী। নয়নের সাথে আমার পরিবারকেও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে আজগর আলীর ছেলে রহমত আলী। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার ভাইয়ের বিচার চাই।’

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ মার্চ রাত ১০ টার দিকে ফরহাদ হোসেন সরকার নয়নকে উপজেলার শিবু কুঠিরপাড় বাজার থেকে রিক্সা যোগে বাড়ি ফেরার পথে মুচির বাড়ির সামনে তার পথ গতিরোধ করে কোহিনুরগং ও তার সহযোগীরা। এসময় একই গ্রামের রহমত আলী ও তার লোকজন নয়নকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে এলাকাবাসি ঘটনাস্থল থেকে আহত নয়নকে উদ্ধার করে কাউনিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা করেন। পরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। অবস্থা সংকটাপন্ন দেখে রংপুর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করেন। বর্তমানে ঢাকায় পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়ন মৃত্যু সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। এ ঘটনায় নয়নের বড় ভাই ফকরুল আলম বাদি হয়ে ১৩ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে কাউনিয়া থানার ওসি আজিজুল ইসলাম জানান, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

"