কালকিনিতে ব্যাংকের টাকা চুরি ম্যানেজারসহ ৫ জন শ্রীঘরে

প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০

কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

মাদারীপুরের কালকিনিতে ব্যাংকের টাকা চুরি করে ম্যানেজার ও ক্যাশিয়ারসহ পাঁচজনের স্থান হয়েছে শ্রী ঘরে। এ চুরির ঘটনায় ব্যাংক ভবনের মালিক আলো সরদার বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল শুক্রবার সকালে এ তথ্য নিশ্চত করেছে থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ফাঁসিয়াতলা হাটে আলো সরদার নামের এক ব্যাবসায়ীর কাছ থেকে তার ভবনের একটি রুম ভাড়া নিয়ে ইসলামী এজেন্ট ব্যাংকিং এর একটি শাখা চালু করেন ইসলামী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। তারা এ শাখাটি খুলে দীর্ঘদিন যাবত ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। কিন্তু গত ১৫ জানুয়ারি রাতে ওই ভবনের কেঁচিগেট ভেঙে চোর চক্র ভিতরে প্রবেশ করে এজেন্ট ব্যাংকের ভোল্টে রাখা সমস্ত টাকা নিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন ব্যাংকের গেট ভাঙা দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দিলে কালকিনি থানার ওসি নাছির উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্সনিয়ে ঘটনাস্থলে যায়। পরে ব্যাংকের দায়িত্বে থাকা ম্যানেজার ও কর্মকর্তারা-কর্মচারিরা তথ্য দিলে তাতে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। প্রাথমিকভাবে ম্যানেজার এরশাদ আলী ও ক্যাশিয়ার মহসিন মৃধাসহ পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন থানা পুলিশ। এতে করে তারা টাকা আত্মসাৎ করার জন্য সবাই মিলে এ চুরি করেছেন বলে স্বীকার করেন। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি হওয়া চার লাখ ৬২ হাজার ৮৮০ টাকা উদ্ধার করেন। পরে ভবনের মালিক আলো সরদার বাদি হয়ে ম্যানেজার এরশাদ আলী, ক্যাশিয়ার মহসিন মৃধা, নুর মোহাম্মদ সরদার, সালাউদ্দিন সরদার ও আলী সরদারকে আসামি করে থানায় একটি মামলা করেন। পরে থানা পুলিশ তাদের আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করে। মামলার বাদি আলো সরদার বলেন, এলাকার সাধারণ জনগণকে ফাঁসানোর জন্য ব্যাংকের ম্যানেজারসহ সবাই মিলে এ চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে।

কালকিনি থানার ওসি নাছির উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যাংকের দায়িত্বে থাকা লোকজনদের জিজ্ঞাসা করলে তারা নিজেরাই এ টাকা চুরি করেছেন বলে স্বীকার করেন। পরে তাদের তথ্য মত বিভিন্ন স্থান থেকে ৪ লাখ ৬২ হাজার ৮৮০ টাকা উদ্ধার করি। ভবনের মালিক আলো সরদার বাদি হয়ে এ বিষয়ে মামলা করলে অভিযুক্তদের আটক করে আদালতে প্রেরন করি।

 

"