ভোলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জেলেদের চাল আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

ভোলা প্রতিনিধি

মা ইলিশ রক্ষায় চলছে ২২ দিনের অভিযান। ভোলার সব ইউনিয়নে জেলেরা পেয়েছে বরাদ্দকৃত পুনর্বাসনের চাল। আর ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নে জেলেরা বরাদ্দকৃত পুনর্বাসনের চাল না পাওয়ায় বিক্ষোভ করেছেন। গতকাল বুধবার সকালে পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের মেঘনা নদীর তীরে এই বিক্ষোভ করেন জেলেরা।

বিক্ষোভ মিছিলে জেলেরা জানায়, পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নে ২৪০ জেলের জেলে কার্ড থাকলেও এবার শুধু ১০০ জেলে পেয়েছে পুনর্বাসনের চাল। ৪০ কেজি পাওয়ার কথা থাকলেও চাল বিতরণে কেউ পেয়েছে ১২ কেজি কেউ ১৩ কেজি কেউবা ১৫ কেজি।

জেলেরা অভিযোগ করে বলেন, পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসনাইন আহমেদ হাসান মিয়া জেলেদের কার্ড নিয়ে গেছেন চাল দেওয়ার জন্য। কিন্তু সবাই চাল পায়নি, এখনো বাকি থাকা ১৪০ জেলের কার্ড ইউনিয়ন পরিষদে। ১২ থেকে ১৫ কেজি করে চাল বিতরণ করছে তাহলে বাকি চাল কোথায় যাচ্ছে প্রশ্ন তাদের। এছাড়া নতুন করে ট্যাক্স নাম দিয়ে প্রত্যেক জেলে পরিবারের কাছ থেকে ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা চাঁদা দাবি করছে।

এদিকে জেলেরা সমস্যা সমাধানে বিক্ষোভ মিছিল থেকে জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম ছিদ্দিকসহ ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

চাল আত্মসাতের অভিযোগর বিষয়ে পূর্ব ইলিশা ইউপি চেয়ারম্যান হাসনাইন আহমেদ হাসান মিয়ার সঙ্গে কথা বলতে তার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এদিকে সদর ইউএনও কামাল হোসেন বলেন, এই ধরনের ঘটনা সঠিক নয়। চেয়ারম্যান হাসনাইন যা চাল পেয়েছে তাই বিতরণ করেছে।

"