সখীপুরে নিখোঁজের ৫ দিনেও সন্ধান মেলেনি গৃহবধূর

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে নিখোঁজের ৫ দিন পেরিয়ে গেলেও তিন সন্তানের জননী আর্জিনা ওরফে নার্জিনা বেগমের (৩৫) সন্ধ্যান মেলেনি। গত ৯ অক্টোবর সখীপুর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড এলাকা থেকে নিখোঁজ হয় আর্জিনা। সে উপজেলার ৮ নং বহুরিয়া ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের খামারচালা এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের তালাকপ্রাপ্তা স্ত্রী। এদিকে মাকে হারিয়ে গত ৫ দিন ধরে আর্জিনার তিন সন্তান নাঈম হাসান (১২), জাকিয়া সুলতানা (১০), জান্নাত আরা (০২) এবং মা নাছিমা বেগমের কান্না যেন থামছেই না। পরিবারের দাবি আর্জিনাকে হত্যার পর তার সাবেক স্বামী নিজেও আত্মহত্যা করেছে।

পুলিশ ও আর্জিনার পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গত ৭ মাস আগে নিখোঁজ আর্জিনা সঙ্গে উপজেলা বহুরিয়া ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়। এরপর থেকেই তিন সন্তানকে নিয়ে পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মায়ের সঙ্গেই থাকতো আর্জিনা। বাবা না থাকায় পরিবারের খরচ জোগাতে ওই ওয়ার্ডের বাদলের পোল্ট্রি ফার্ম ও পেপে বাগানে দিন মুজুরীর কাজ করত আর্জিনা। বেশ কিছুদিন ধরে জাহাঙ্গীর আলম আর্জিনাকে পুনরায় বিয়ে করার বিষয়ে বারবার মুঠোফোনে চাপ দিতে থাকে। গত ৫ অক্টোবর দুপুরে সাবেক স্বামী জাহাঙ্গীর আর্জিনার মুঠোফোনে পুনরায় তাকে বিয়ে না করলে তাকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। এর চারদিন পর ৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৬টার দিকে আর্জিনা জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ির পাশে বাদলের ফার্মে বকেয়া টাকা আনতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। সকাল ৭টার দিকে আর্জিনার মুঠোফোনটিও বন্ধ থাকায় ছেলে ও পরিবারের লোকজন তাকে খুজতে বের হন। দুপুরে খবর আসে আর্জিনার সাবেক স্বামী জাহাঙ্গীর গলায় ফাঁস লাগিয়ে আতœহত্যা করেছে। এর পর থেকেই আর্জিনার পরিবারের ধারণা জাহাঙ্গীর আর্জিনাকে মুঠোফোনে দেওয়া হুমকিই কিনা বাস্তবায়ন করলো। খোঁজাখুজির পর পরদিন ১০ অক্টোবর সকালে নিখোঁজ আর্জিনার মা নাছিমা বেগম সখীপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

এসআই বদিউজ্জামান বলেন, আর্জিনা নিখোঁজের ব্যাপারে থানায় ডায়েরি করা হয়েছে। সে নিজে আত্মগোপন করেছে নাকি তাকে হত্যা করা হয়েছে এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

"