কুড়িগ্রামে মুক্তিপণের দাবিতে যুবক অপহরণ : গ্রেফতার ৬

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামে মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে এক যুবককে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অপহৃতের মামা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের সহায়তা চাইলে পুলিশ অপহৃতকে উদ্ধার এবং তিন নারীসহ ৬ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে। কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি মাহফুজার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। অপহৃত যুবকের নাম হোসেন আলী। তিনি নাগেশ্বরী উপজেলার নারায়নপুর ইউনিয়নের পাখিউড়া গ্রামের আব্দুল কাদেরের পুত্র।

পুলিশ জানায়, আটককৃত আসামি মুন্নি পারভীন অপহৃত যুবক হোসেন আলীর পূর্ব পরিচিত। গত রোববার সকাল মুন্নি হোসেন আলীকে ফোন করে জেলা স্টেডিয়ামের সামনে ডেকে নেয়। এ সময় মুন্নির সঙ্গে থাকা তার সহযোগিরা জোরপূর্বক হোসেন আলীকে মোটরসাইকেলে তুলে সদর উপজেলার টাপু ভেলাকোপা এলাকায় নিয়ে যায়। পরবর্তীতে অপহরণকারীরা হোসেন আলীকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে এবং মামা বেলাল হোসেনকে ফোন করে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরে মামা বেলাল হোসেন ভাগিনাকে উদ্ধারে সরকারি কলসেন্টার ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশের সহায়তা চান। বিষয়টি কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশ অবহিত হয়ে রোববার সন্ধ্যা ৬টায় টাপু ভেলাকোপা এলাকা থেকে অপহৃত হোসেন আলীকে উদ্ধার করে। এ সময় ঘটনায় জড়িত তিন নারীসহ ছয় অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে।

উদ্ধারকৃত যুবক হোসেন আলী বর্তমানে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে চিকিসাধীন রয়েছে। হাসপাতাল সূত্র জানায়, তার হাতে ও পায়ে নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে। কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি মাহফুজার রহমান জানান, অপহরণের ঘটনায় অজ্ঞাতনামা তিনজনসহ ১০ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।

"