কাঁঠালিয়া উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্র

নষ্ট হচ্ছে লক্ষাধিক টাকার কেটে রাখা গাছ

প্রকাশ : ১২ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় উপজেলা প্রশাসন, বন বিভাগ ও স্বাস্থ্য বিভাগের সমন্বয়হীনতার কারণে উপজেলা সদরের কাঁঠালিয়া উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের লক্ষাধিক টাকার কেটে রাখা গাছ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি ওই উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের জমিতে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের তিনতলা ভবন নির্মাণ করায় সেই জমিতে থাকা বিভিন্ন প্রজাতির অনেক গাছ কেটে উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনে ফেলে রাখা হয়। রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে গাছগুলো নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা উপসহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডা. ফারুক হোসেন জানান, কাঁঠালিয়া ইউএনও উদ্যোগ নিলে গাছগুলো আর নষ্ট হতো না। বিষয়টি তাকে একাধিকবার বলা হলেও তিনি এড়িয়ে যাচ্ছেন।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার আবু জাফর মোহাম্মদ মুসা জানান,‘কাঁঠালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৯জন চিকিৎসকের বিপরীতে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন একজন। এজন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে অনেক ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। তারপরেও দ্রুত ব্যবস্থা নিতে তাকে বলবো।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. তাপস কুমার তালুকদার জানান, গাছগুলো নিলামের জন্য একটি কমিটি আছে। যেখানে সিভিল সার্জন, ইউএনও, বন কর্মকর্তা এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার থাকার কথা। মূলত সিভিল সার্জনই মূল উদ্যোগ নিবেন। কাঠালিয়া উপজেলা বন কর্মকর্তা মনিন্দ্র নাথ হালদার জানান, আমি কয়েকদিন পূর্বে কাঠালিয়ায় যোগদান করেছি। বিষয়টি আমার জানা ছিলো না। প্রক্রিয়া অনুযায়ী যত দ্রুত সম্ভব ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ইউএনও আকন্দ মোহাম্মদ ফয়সাল উদ্দীন জানান, উপজেলার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনের গাছ কি করবে না করবে তা সিভিল সার্জনের ব্যাপার। তিনিই এব্যাপারে বলতে পারবেন। তারপরেও আমি খোঁজ খবর নিয়ে দেখবো।

 

"