পলিথিন পুড়িয়ে তৈরি হচ্ছে জ্বালানি তেল ও গ্যাস

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে পরিত্যক্ত পলিথিন গলিয়ে উৎপাদন হচ্ছে ডিজেল, পেট্রল ও গ্যাস। উৎপাদিত পেট্রল দিয়ে মোটরবাইক এবং ডিজেল দিয়ে চলছে গাড়ি ও ইঞ্জিন চালিত যানবাহন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার সারপলসিয়া গ্রামে নোয়াখালীর শাহআলম (জুয়েল) পলিথিন বর্জ্য থেকে জ্বালানি তেল তৈরি করছেন। এই উদ্যোগ পরিবেশ দূষণ অনেকাংশেই কমিয়ে দেবে। যেখানে বর্জ্য পলিথিন প্রকৃতির জন্য এক বড় হুমকি, কারণ তা মাটিতে মিশে না। সেখানে সুন্দর একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তৈরি করা হচ্ছে জ্বালানি তেল ও গ্যাস। প্রথমে একটি বড় লোহার ট্যাংকিতে পলিথিন ভরা হয়। পলিথিন ভর্তি ট্যাংকির নিচে আগুন দিয়ে গরম করলে পলিথিন গলে বাষ্প হয়। ট্যাংকির সঙ্গে যুক্ত ২০ থেকে ৩০ ফিট লম্বা স্টিলের পাইপের মাধ্যমে প্লাস্টিকের জারে ডিজেল ও পেট্রল নির্গত হয়। একটি জারে পেট্রল ও একটিতে ডিজেল সঞ্চয় করা হয় এবং গ্যাস সঞ্চয় করার যথাযথ ব্যবস্থা না থাকায় তা আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে। ওই তেল রিফাইন্ড করতে নিজ পদ্ধতিতে ফিল্টারও তৈরি করেছেন ওই প্রতিষ্ঠানের টেকনিশিয়ান সালাহ্ উদ্দিন। ১০০ কেজি পলিথিন থেকে তৈরি করা হচ্ছে ৮০ থেকে ৮৫ লিটার ডিজেল ও ৫ লিটার পেট্রল।

পলিথিন বর্জ্য পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর, কিন্তু এ পদ্ধতিতে রিসাইকেলিং হয়ে তা সম্পদে পরিণত হচ্ছে এবং সৃষ্টি হচ্ছে কর্মসংস্থানের।

সারপলসিয়া গ্রামে নোয়াখালীর শাহআলমের (জুয়েল) সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তিন মাস ধরে তিনি কাজ শুরু করেছেন। এরই মধ্যে ডিজেল, পেট্রল, গ্যাস তৈরির মেশিন চলছে পর্যায়ক্রমে অকটেনও তৈরি হবে।

ভূঞাপুর ইউএনও ঝোটন চন্দ্র বলেন, পরিত্যক্ত পলিথিন দিয়ে জ্বালানি তেল তৈরির প্রক্রিয়ায় পরিবেশ থেকে বর্জ্য পলিথিন দূর হবে এবং এটি সম্পদে পরিণত হবে।

 

"