তানোরে জমে উঠেছে চারাগাছের মৌসুমি হাট

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি

চলতি বর্ষা মৌসুমকে কেন্দ্র করে রাজশাহীর তানোর উপজেলায় জমে উঠেছে চারাগাছ কেনা-বেচার মৌসুমি হাট। এখানে বিভিন্ন প্রজাতির চারাগাছ সহজমূল্যে বিক্রি হচ্ছে। উপজেলার বেশির ভাগ এলাকা বরেন্দ্র ভূমি হওয়ার গাছের চারা লাগানোর এখন উপযুক্ত সময়। সম্প্রতি উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে বিদেশি প্রজাতির আকাশমনি, ইউক্যালিপটাস, মেহগনিসহ দেশি জাতের আম, জাম, কাঁঠাল, লেবু, পেয়ারা, জলপাই, পেঁপে এবং নিমসহ ওষুধি গাছের চারা বিক্রি হতে দেখা গেছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে তানোর পৌরশহরের গোল্লাপাড়া হাটে চারাবিক্রেতা শরিফুল আলী জানান, এবারে উপজেলার এ মৌসুমি চারার হাটে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের ভিড় লক্ষ করা গেছে। প্রতি হাটবারে তারা আ¤্রপালি, গৌরমতি, বারী-৪, খিরশাপাতি, নাক ফজলি, আর্শিনা ও বারমাসি কাঠিমন জাতের আমের চারা, থাই হাইব্রিড নারিকেল গাছের চারা বেশি বিক্রি হচ্ছে। বিগত বছরের তুলনায় এ বছর সবধরনের গাছের চারার দাম একটু হলেও বেশি।

এছাড়াও বাজারে বেশ কয়েকজন চারা ব্যবসায়ীর সাথে কথা হলে তারা জানায়, তানোরসহ বরেন্দ্র এই অঞ্চলের লোকজন বনজ জাতের চারা গাছ লাগানোর চাইতে ফলদ জাতের চারা গাছ বিশেষ করে আমগাছের চারা রোপণের ব্যাপারে খুবই উৎসাহী।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সামিমুল ইসলাম জানান, জলবায়ুর পরিবর্তনের কারণে বনজ সম্পদের পরিমাণ দিন দিন কমে যাচ্ছে। এজন্য বেশি করে গাছ লাগাতে হবে।

 

"