আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৭

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে বালু ঘাটে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে দুই গ্রুপের অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সিরাজকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ যমুনা নদীতে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে নূর আলম মন্ডল (নুহু মেম্বার) ও সবুর সরকার গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে সিরাজকান্দি বাজার সংলগ্ন বালু ঘাটটি উভয় গ্রুপ দখলে নেওয়ার চেষ্টা করলে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এতে দুই গ্রুপের অন্তত ১৭ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে সবুর সরকার গ্রুপের ১০ জনকে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এর মধ্যে সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। অপর দিকে নুরে আলম গ্রুপের আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বলে জানা গেছে।

ইউপি সদস্য নূর আলম মন্ডল (নুহু মেম্বার) জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মতিন সরকারের ভাই মমিন সরকারসহ কয়েকজন মিলে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সিরাজকান্দি বাজারে আমাদের উপর হামলা চালায়। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে আমাদের সাতজন আহত হয়।

নিকরাইল ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন সরকার জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এতে সবুর গ্রুপের ১০জন আহত হয়েছে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ভূঞাপুর থানার ওসি রাশিদুল ইসলাম জানান, বালু ঘাটের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের লোকজন মুখোমুখি অবস্থান নেয়। পরে সেটি সংঘর্ষে রূপ নেয়।

"