খবর প্রকাশের জের

আমতলীর পরিত্যক্ত সেই শিশুপার্কের সংস্কার শুরু

প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

বরগুনার আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবন সংলগ্ন উপজেলার একমাত্র শিশু পার্কটির সংস্কারকাজ শুরু হয়েছে। তিন মাস পূর্বে ইউএনও মনিরা পারভীন আমতলীতে যোগ দেন পার্কটির বেহাল অবস্থা দেখে সংস্কারের ঘোষণা দেন। তারপরই পার্ক সংস্কারের কাজ করার জন্য উপজেলা পরিষদের সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহন ও জেলা প্রশাসকের অনুমতি নিয়ে রাজস্ব খাত থেকে দু’লাখ টাকার বাজেট নিয়ে বালু ভরাট ও প্রাথমিক ভাবে কাজ শুরু করেছেন। শিশু পার্কটির সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় পৌর বাসিন্দাদের মধ্যে উল্লাস ছড়িয়ে পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০০৩ সালে শিশুদের চিত্ত বিনোদনের কথা চিন্তা করে তৎকালীন সরকার এলজিইডির মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবন সংলগ্ন পূর্ব পাশে খেলার মাঠ ঘিরে একটি শিশু পার্ক গড়ে তোলেন। মাঠের ভিতরে শিশুদের চিত্ত বিনোদন এবং খেলার জন্য দোলনা, মই, ছাতা ও বেঞ্চ নির্মাণ করা হয়। পার্কটি স্থাপনের পর শিশুদের আনাগোনা বেড়ে যায়। কিন্তু নির্মাণের ২/৩ বছর যেতে না যেতেই পার্কে স্থাপিত লোহার খেলনা গুলোতে মরিচা ধরতে শুরু করে। এগুলো সংস্কারের কোন উদ্যোগ না নেওয়ায় একটা সময় খেলনাগুলো পুরোটাই ধংস হয়ে যায়। পার্কটি পরিত্যক্ত হওয়ার ১৪ বছর পর পুনরায় সংস্কার শুরু করেন।

আমতলী প্রেসক্লাব সভাপতি দেওয়ান মস্তফা কবির বলেন, পৌরশহরের শিশুদের বিনোদনের কোন স্থান ছিলনা উপজেলা প্রশাসন পার্কটি সংস্কারের কাজ শুরু করেছে খুবই ভালো পরিকল্পনা। ইউএনও মনিরা পারভীন জানান, আমরা পার্ক সংস্কারের কাজে হাত দিয়ে দিয়েছি। এলাকার শিশুদের খেলাধুলা করার কোন স্থান নাই। সরকারী, জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিদের সহযোগিতায় নতুনভাবে পার্কটি চালু করা হবে।

"