গাজীপুরে সহকর্মীর লাশ রেখে পালানোর চেষ্টা : আটক ৫

প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুরে আসেদুল রনি (৩৫) নামে এক জেন্টস পার্লারের কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হাসপাতালে লাশ ফেলে পালানোর চেষ্টাকালে সন্দেহভাজন পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাশ ফেলে পালানো চেষ্টা করেন আটককৃতরা। নিহত আসেদুল রনি নওগাঁ সদরের জয়নুদ্দীনের ছেলে। তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দক্ষিণ বরুদা এলাকায় ভাড়া থেকে জোড়পুকুরপাড় এলাকার অ্যাডাম জেন্টস পার্লারে কাজ করতেন। আটককৃতরা হলেন ওই পার্লারের কর্মচারী আল-আমিন, রিমন, লাইজু, রিমন এবং আজিজুর।

সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রনিকে নিয়ে কয়েকজন শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যায়। রনি মারা গেছে শুনে লাশ ফেলে সঙ্গে আসা লোকজন গা-ঢাকা দিতে শুরু করেন। এ সময় হাসপাতালে দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা দুজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আরো তিনজনকে আটক করে।

গাজীপুর সদর থানার এসআই সাইদুর জানান, নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহত রনি এবং আটককৃতরা একই জেন্টস পার্লারে কাজে করেন। এক সহকর্মীর ননদকে রনি উত্ত্যক্ত করত এ অভিযাগে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) প্রণয় ভূষণ দাস জানান, মৃত অবস্থায় রনিকে এ হাসপাতালে আনা হয়েছিল।

 

"