‘ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের অন্যতম কারণ বিচারহীনতার সংস্কৃতি’

গৃহকর্মী ইয়াসমিন ধর্ষণ-হত্যাকাণ্ডের ২৪ বছর পূর্তি

প্রকাশ : ২৫ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

দিনাজপুরে গৃহকর্মী ইয়াসমিন ধর্ষণ ও হত্যা ২৪ বছর উপলক্ষে তিনস্থানে ‘নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস’ ও ‘ইয়াসমিন ট্রাজেডি দিবস’ পালন করেছে বিভিন্ন সংগঠন। এর মধ্যে গাইবান্ধায় বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্রের উদ্যোগে বিক্ষোভ-সমাবেশ, দিনজপুরের দশ মাইলে ইয়াসমিনের স্মৃতি স্তম্ভের সামনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ও কর্মজীবী নারী দিনাজপুর জেলা শাখার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শনিবার বিভিন্ন সময় এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

দিনাজপুরে বক্তারা বলেন, ‘শুধু ইয়াসমিন নয়, এখন প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে শত ইয়াসমিন ধর্ষণ, নির্যাতন ও হত্যার শিকার হচ্ছে। অব্যাহত এই ধর্ষণ ও হত্যার অন্যতম প্রধানকারণ বিচারহীনতার সংস্কৃতি। ধর্ষক ও হত্যকারীরা রাজনৈতিকভাবে আশ্রয় ও প্রশ্রয় পাচ্ছে এবং তাদের আইনের ফাঁকে জামিনও হচ্ছে। আমরা এর অবসান চাই। আমরা চাই, সরকারের পক্ষ থেকে জঙ্গী ও মাদকের মত ধর্ষণকারী এবং নারী নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা হোক।’

উল্লেখ্য ১৯৯৫ সালের ২৪ আগস্ট দিনাজপুরের কতিপয় অসাধু পুলিশ সদস্যদের দ্বারা দলবদ্ধ ধর্ষণ ও হত্যাকা-ের শিকার হন। পরে এর প্রতিবাদী মিছিলে পুলিশের গুলিতে আরো ৭ জন নিহত হন।

আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠান খবর:

গাইবান্ধা : গাইবান্ধা শহরে গতকাল সকালে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র জেলা। স্থানীয় পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে নারী মুক্তি কেন্দ্র জেলা সভাপতি অধ্যাপক রোকেয়া খাতুনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ (মাকর্সবাদী) জেলা সদস্য সচিব মনজুর আলম মিঠু, নারী মুক্তি কেন্দ্র সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, সদস্য শামীম আরা মিনা প্রমুখ। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

দিনাজপুর-ফুলবাড়ী : দিনজপুর-ঢাকা মহসড়াকের পাশের দশ মাইলে সকাল ১১টায় ইয়াসমিনের স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পমাল্য অর্পন করেছে বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন কর্মজীবী নারী দিনাজপুর জেলা শাখা। পরে সেখানে তারা ইয়াসমিনের ঘটনাসহ দেশে সব ধর্ষণ ও হত্যাকা-ে বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেন। এতে বক্তব্য দেন কর্মজীবী নারীর জেলা কমিটির নেতা বিলকিস বেগম, রুনা বেগম, জলি চৌধুরী, সুবর্না আক্তার, নিয়তি বালা প্রমুখ। কর্মসূচি পরিচালনা করেন জেলা কমিটির সম্পাদক মৌসুমী ফেরদৌসী। পরে ‘ধর্ষন, নিপীড়ন ও সহিংসতা প্রতিরোধে সর্বত্র সম্মিলিত আন্দোলন গড়ে তুলি’ এই আহ্বানে লিফলেট বিতরণ করা হয়।

এদিকে জেলার ফুলবাড়ী উপজেলা প্রতিনিধি জানান,

ইয়াসমিন স্মৃতিস্তম্ভের সামনে গতকাল সকালে মানববন্ধন করেছে বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখা। সংগঠনের জেলা শাখার সভাপতি কানিজ রহমানের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ড. মারুফা বেগম, সহ-সভাপতি অর্চনা অধিকারী, মাহবুবা খাতুন, মিনতি ঘোষ, সহ-সম্পাদক মনোয়ারা সানু, অর্থ সম্পাদক রতœা মিত্র, সাংগঠনিক সম্পাদক রুবিনা আকতার, আন্দোলন সম্পাদক গৌরী চক্রবর্তী, প্রচার সম্পাদক জেসমিন আরাসহ অন্যান্য।

"