প্রতিপক্ষের হামলার চার দিন পর যুবকের মৃত্যু

সিলেটের গোলাপগঞ্জে শিশুর ঢিল ছোড়কে কেন্দ্র করে ঝগড়া

প্রকাশ | ১৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি

গোলাপগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলার চারদিন পর এমাদ উদ্দিন (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার বিকালে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত এমাদ উপজেলার ফুলবাড়ি ইউপির দড়া পূর্ব পাড়ার সোনাফর আলীর ছেলে।

এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার নিহত এমাদের স্ত্রী নাজমীন বেগম জেবিন বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় ৭ জনের নাম উল্লেখ ও ৩ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই মোগলাবাজার থানার রেঙ্গা এলাকা থেকে স্ত্রী রোজিনা বেগমকে (২৬) গ্রেফতার করে পুলিশ। রোজিনা মোগলাবাজার থানার রেঙ্গা এলাকার নাছিম উদ্দিন নুনু মিয়ার স্ত্রী।

মামলার এজাহার, নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার সকালে এমাদ উদ্দিনের প্রতিবেশী রাবেল আহমদ ও তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে ছোট বাচ্চাদের ঢিল ছোড়াকে কেন্দ্র করে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে দুইপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে সংঘর্ষে রূপ নেয়। এ সময় প্রতিপক্ষের দা’য়ের আঘাতে এমাদ জখম হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে বুধবার বিকেলে তিনি মারা যান। গতকাল বৃহস্পতিবার বাদ এশা মরদেহ দাফন সম্পন্ন করার কথা রয়েছে।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করছে। অপর আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

 

"