মির্জাগঞ্জে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের ভ্রমণ বিল ‘আত্মসাৎ’

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলায় ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারিদের নামে ভ্রমন বিল বাবদ প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগের তীর উপজেলা নির্বাহী অফিসের অফিস সহকারি কাম কম্পিউটার অপারেটর মিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, ২০১৭-২০১৮ এবং ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে উপজেলা নির্বাহী অফিসে কর্মরত ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারি জয়ন্তী রানীর নামে ৩টি বিলে ১৮ হাজার ৩৯০ টাকা, নাসির উদ্দিনের নামে ৫টি বিলে ৪১ হাজার ৩৯০ টাকা, আব্দুর রহমানের নামে ১৬টি বিল বাবদ এক লাখ ৭৪ হাজার ২৮০ টাকা ও রুবেলের নামে ১০টি বিল বাবদ এক লাখ ১২ হাজার ৬৭০ টাকা, ঝাড়–দার বেগমের নামে ৫টি বিল বাবদ ৫১ হাজার ৪০ টাকা, গোলাম রব্বানির নামে ৫টি বিল বাবদ ৬২টি হাজার ৫৭০ টাকা, ওয়ালিউল্লার নামে ৩টি বিলে ১৭ হাজার বিশ টাকা ভ্রমন বিল বাবদ উত্তোলন করে আত্মসাত করেছেন অফিস সহকারি মিরাজুল ইসলাম। একাধিক নাম না প্রকাশের শর্তে কয়েকজন ভূক্তভোগী জানান, নিজ উপজেলায় মিরাজুল চাকরি করার সুবাদে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে একের পর এক অনিয়ম করে যাচ্ছে।

তার বিরুদ্ধে অফিসের কেউ ভয়ে কথা বলতে সাহস পায়না। আমাদের না জানিয়ে দুই অর্থবছরে ভ্রমন বিলের টাকা উত্তোলন করে আত্মসাত করেন তিনি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মিরাজুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ইউএনও সরোয়ার হোসেন জানান, আমি এই বিষয়ে কিছুই জানিনা। কোন লিখিত অভিযোগও পাইনি।

 

"