ইউএনওর মোবাইল নম্বর ক্লোন করে প্রতারণা

প্রকাশ : ১৯ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি

নাটোরের সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহাতোর সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা আদায়ের চেষ্টা করেছে একটি প্রতারক চক্র। তবে এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনের ফেসবুক পেজে সতর্কতামূলক পোস্ট দেওয়া হয়েছে।

গত বুধবার সন্ধ্যার দিকে নম্বরটি ক্লোন করে চাঁদা আদায়ের চেষ্টা করা হয়। উপজেলার দুটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানের কাছে ইউএনও’র পক্ষ থেকে ল্যাপটপ দেওয়া হবে বলে ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা বলেন প্রতারকরা। পরবর্তী সময়ে উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আ. মতিন ও জিয়াউল হককে ফোন দিয়ে টাকা চাইলে তারা বিষয়টি ইউএনওকে জানান।

নিংগইন-জোরমল্লিকা দ্বিমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয়নাল আবেদীন বলেন, আমি মাগরিবের নামাজ পরে মোবাইল হাতে নিয়ে দেখি ইউএনও স্যারের ফোন থেকে ফোন দেওয়া হয়েছে, পরে ফোন দিলে উনি আমাকে বলেন যে, আমাকে চিনতে পেরেছেন। আমি তার কণ্ঠ বুঝতে না পেরে বলি কে আপনি। পরে তিনি ফোন কেটে দেন।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আ. মতিন বলেন, আমাকে কুমগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রাব্বানী মৃদুল ফোন দিয়ে জানান, ইউএনও স্যার আমাদের প্রতিষ্ঠানে ল্যাপটপ দেবে বলে ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা চাচ্ছে। তখন আমি তাদের টাকা দিতে নিষেধ করি।

ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি আমার নম্বর থেকে কেউ কোনো টাকা-পয়সা চাইলে না দেওয়ার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ করে ফেসবুকে সতর্কতামূলক পোস্ট দিয়েছি।

 

"