কালিয়াকৈর পৌরসভা

৫ গ্রামের ঘরবাড়িতে হাঁটুপানি

প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

গাজীপুরের কালিয়াকৈর পৌরসভার পাঁচটি গ্রামের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। গত তিনদিনের ভারি বর্ষণে পৌরসভার হরিণহাটি, চন্দরা, বিশ^াসপাড়া, রাখালিয়াচালা ও সফিপুর পূর্বপাড়া গ্রামের সহ¯্রাধিক ঘরবাড়িতে এখন হাটু পানি। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ভুক্তভোগী পরিবারগুলো। এলাকায় অপরিকল্পিত শিল্প কারখানা ও পানি নিষ্কাশনের কার্যকরী ব্যবস্থা না থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা সম্প্রসারণের জন্য পৌর কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার আবেদন করা হলেও কোন সাড়া মেলেনি বলেও অভিযোগ তাদের। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পানিবন্দী ঘরগুলোতে বসবাসকারীদের বেশির ভাগই পোশাক কারখানার শ্রমিক। ঘরে হাটু পানি জমে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন শ্রমিকরা। ময়লাযুক্ত পানি ঘরে জমে থাকায় দুর্গন্ধের সঙ্গে বসবাস করতে হচ্ছে তাদের। হরিণহাটি এলাকার আলমগীর হোসেন জানান, গত রাতেই তার বাড়ির প্রতিটি কক্ষে হাটু পানি ঢুকে পড়েছে। ৪৮ ঘন্টা ধরে পঁচা ময়লাযুক্ত পানির উপর টং করে বসবাস করছেন। একই এলাকার সামছুল হক, আব্দুল জলিল, শহিদুজ্জামান জানান, এলাকার প্রায় পাঁচ শতাধিক বাড়িতে বৃষ্টির পানি ঢুকে পড়েছে।

রাখালিয়াচালা গ্রামের ফজলুল হক জানান, ওই গ্রামের শতাধিক ঘরবাড়ি পানিতে ডুবে গেছে। এ সময় দ্রুত পানি নিষ্কাশনের দাবি জানান তিনি।

সফিপুর পূর্বপাড়া গ্রামের শমসের আলী জানান, নিচু এলাকার ড্রেন দিয়ে পানি নামতে না পারায় শত শত বাড়িতে হাটু পানি জমে উঠেছে। বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়ারা চরম দুভোর্গে পড়েছেন। কালিয়াকৈর পৌর প্যানেল মেয়র ও ৭নং ওয়ার্ড কমিশনার সামছুল আলম জানান, ইতোমধ্যে পানি নিষ্কাশনের জন্য শ্রমিক কাজে লাগানো হয়েছে। অতিবর্ষণের কারণে ড্রেন দিয়ে পানি নিচু এলাকায় নামতে না পারায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

 

"