শাজাহানপুরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশ : ১৩ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার শাজাহানপুরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জাব্বারুল ইসলাম (৩০) নামের এক যুবককে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের বড়চান্দাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত যুবক ওই গ্রামের মৃত আবদুল কুদ্দুস প্রামাণিকের পুত্র। নারী ঘটিত বিষয় নিয়ে তাকে ফোন করে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে নিহতের স্বজনদের অভিযোগ। এ ঘটনায় স্মৃতি নামের এক নারীকে গতকাল শুক্রবার পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গেছে। তবে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেন ওসি আজিম উদ্দিন।

নিহতের মামা এনামুল হক জানান, নিহত জাব্বারুল কৃষি কাজ করতো। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে জাব্বারুল বাড়ির পাশে এক দোকানের সামনে ক্যারাম বোর্ড খেলছিলো। এ সময় তাকে মুঠোফোনে তারই বাড়ির পিছনে ডাকা হয়। সেখানে গেলে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করা হয় তাকে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় জাব্বারুলের আত্মীয়-স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরও জানান, নিহত জাব্বারুলের বাড়ির পিছনেই স্মৃতি (২৮) নামের এক প্রবাসীর স্ত্রীর বাড়ি। ওই প্রবাসীর স্ত্রীকে নিয়ে কয়েকমাস যাবৎ এলাকার কিছু যুবকের সঙ্গে জাব্বারুলের দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো। এরই জেরে তাকে হত্যা করা হয়েছে। স্মৃতি বড় চান্দাই গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী ফারুক হোসেনের স্ত্রী। শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দিন গতকাল শুক্রবার জানান, এখন পর্যন্ত হত্যার কারণ জানা যায়নি। কাউকে আটকও করা সম্ভব হয়নি। হত্যার নেপথ্যে পরকীয়া আছে কিনা এ বিষয়েও কিছু জানা যায়নি।

 

"