খানসামায় রোপা আমনের চারা রোপণে ব্যস্ত কৃষক

প্রকাশ : ১৩ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

তারিকুল ইসলাম চৌধুরী, খানসামা (দিনাজপুর)

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় চলতি বর্ষা মৌসুমে রোপা আমন ধানের চারা রোপন শুরু করেছে কৃষকরা। এলাকার কৃষকরা ধান চাষের পূর্ব প্রস্তুতি নিতে ব্যস্ত সময় পাড় করেছেন। কৃষকদের দম ফেলার ফুরসত নেই। ফজরের আযান দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে হালের গরু, লাঙ্গল, জোঙ্গাল নিয়ে বেড়িয়ে পড়ে জমি চাষের জন্যে। এ সময় গরুর হাল ছাড়াও পাওয়ার টিলার, হ্যারো হাল দিয়ে তিন থেকে পাঁচ বার করে হাল দিয়ে জমি প্রস্তুত করে নেন কৃষকেরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, জমিতে হাল দিয়ে অনেক কৃষক সপ্তাহ খানেক বা তারও বেশি সময় ধরে অপেক্ষা করছেন। একে বলে জাবর। জমিতে জাবর দিয়ে রাখার কারন হলো পূর্বের বোরো ধানের খরের নাড়াগুলো যাতে পঁচে যায়। বাড়তি জৈব সারের চাহিদা ধানের খরের পঁচা নাড়া হতে চলে আসে। এ সময় কারো কারো বীজতলায় আগাম ধানের চারা সপ্তাহ খানেক আগেই বপনের জন্য প্রস্তুত হয়েছে আর কারো বা সপ্তাহ পরে।

বিভিন্ন এলাকায় দেকা গেছে অনেক কৃষক ৭-১০দিন আগেই জমি প্রস্তুত করে রোপা ধানের চারা রোপনও করেছেন। বর্ষা মৌসুমে উঁচু শহরি জমিগুলোতে স্যালো মেশিন দিয়ে সেচ দিয়ে অনেক কৃষক রোপা আমন ধান রোপন করতে ব্যস্ত। এ মওসুমে কাজের ধুম, যেন কাজ গুলো তাড়াতাড়ি শেষ হতেই চায় না। এ উপজেলায় রোপা আমন ধান রোপনের সমস্ত কাজ চুক্তি ভিত্তিতে ক্ষেত মজুররা কৃষকদের করে দিয়ে থাকেন। বিঘা প্রতি (৫০শতাংশে) ৮০০- ১৪০০ টাকা করে নিয়ে ধান রোপনের সমস্ত কাজ করে দেন তারা। আবার অনেক কৃষক নিজেই ধানের চারা রোপন করে থাকেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আফজাল হোসেন বলেন, কৃষক একটু সচেতন হলে এবং কৃষি পরামর্শ নিয়ে সারিবদ্ধ ভাবে ধান রোপন করলে আরো ভালো ধানের ফলন হবে।

 

"