সোনারগাঁয়ে যুবককে অপহরণের সময় আটক ৮

প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বিজয় হোসেন (১৮) নামের এক যুবককে অপহরন করা সময় ৮ অপহরণকারীকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। গত রোববার পৌরসভা এলাকার শেখ রাসেল ষ্টেডিয়ামের সামনে থেকে তাকে অপহরণের চেষ্টা করা হয়। সে পৌরসভার গোয়ালদী গ্রামের গোলজার হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় অপহৃত যুবকের মা নুরতাজ বেগম বাদি হয়ে একটি মামলা করেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, বিজয় হোসেন শোভন পলিব্যাগ লিমিটেডে কো¤পানীতে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে সাপেরবন্ধ সেতুর উপরে পুরাতন হাইস (ঢাকা মেট্রো-ট ১১-৯২২৫) গাড়ি থেকে নেমে অপহরনকারী দলের সদস্য ফজলে রাব্বি ওরফে রাব্বি একটি ঠিকানা জানতে তাকে ডাক দেয়। বিজয় গাড়ির সামনে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে গাড়িতে তুলে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় বিজয়ের ডাকচিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে গাড়িটির গতিরোধ করে অপহরকারীদের গণপিটুনি দিয়ে আটক করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অপহরণ করার কাজে ব্যবহৃত গাড়িটিসহ ফজলে রাব্বি ওরফে রাব্বি, হিমু, সজিব, ইয়াসিন, আরিফ, মেহেদী হাসান, রিয়াদ ও গাড়ি চালক ফজলুর হক ওরফে ফজল নামের ৮জন অপহরনকারীকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা ফজলে রাব্বী ওরফে রাব্বী মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া এলাকার গোসাইরচর গ্রামের সালাউদ্দিনের ছেলে, হিমু হোসেন গজারিয়ার আমান উল্লার ছেলে, সজিব হোসেন একই এলাকার আহাম্মদের ছেলে, ইয়াছিন মিয়া মাথাভাঙ্গা এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে, আরিফ হোসেন একই এলাকার ওসমান মিয়াজির ছেলে, মেহেদী হাসান একই গ্রামের আবুল কালামের ছেলে, রিয়াদ হোসেন নয়ানগর গ্রামের শাহীন মিয়ার ছেলে এবং গাড়ী চালক ফজলুল হক ওরফে ফজল ফুলদী গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে। সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এঘটনার সঙ্গে জড়িত ৮ জন অপহরনকারীকে মামলা দিয়ে সোমবার আদালতে পাঠনো হয়েছে।

 

"