কসবায় ইউপি সদস্য হত্যা

১৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার মেহারী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য শওকত হোসেন জসিমকে পরিকল্পিতভাবে খুন করার অভিযোগে ১৮জনকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। নিহতের ভাই আলাউদ্দিন বাদি হয়ে গত শনিবার সন্ধ্যায় এ মামলা করেন। নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে গত শনিবার রাতে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে উপজেলার মেহারী ইউনিয়নের যমুনা গ্রামের মৃত গোলাম মোস্তফার পুত্র ইউপি সদস্য শওকত হোসেন জসিমকে গত শুক্রবার রাতে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নেওয়ার পর প্রতিপক্ষ সিদ্দিক মাস্টারের ছেলে জাকির হোসেন ও মুর্শিদের নেতৃত্বে তাকে বেধড়ক পিটিয়ে ও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে জসিমকে। একপর্যায়ে মৃত্যু নিশ্চিত করতে তার পায়ের রগ কেটে দেয় হত্যাকারীরা। পরে মৃত ভেবে বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে জসিমকে ফেলে রাখে তারা। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে বিদ্যালয়ের গেটের তালা ভেঙ্গে গুরুতর আহত অবস্থায় জসিমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে পাঠান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

কুমিল্লা হাসপাতালে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক জসিমকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ঢাকায় নেওয়ার পথে জসিমের মৃত্যুু হয়। মারা যাওয়ার পূর্বে হত্যাকারীদের নাম বলে গেছেন জসিম। তার জবানবন্দি মোবাইলে ভিডিও ধারন করেছে নিহতের পরিবারের লোকজন। এদিকে, শনিবার রাতে নিহতের জানাজা শেষে হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে গ্রামবাসী।

 

"