শ্লীলতাহানি করতে গিয়ে গণধোলাই, মাথান্যাড়া

প্রকাশ : ১৬ জুন ২০১৯, ০০:০০

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জের শিবালয়ের যুবতীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে শরীফুল নামের এক বখাটেকে গণধোলই দিয়ে মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছে জনতা। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার তেওতা ইউনিয়ন পরিষদে ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তি ও ছবি তুলতে আসা এক যুবতীর সঙ্গে অশ্লীল আচরণের পরিপ্রেক্ষিতে এই ঘটনা ঘটে। বখাটে শরীফ দক্ষিণ তেওতা এলাকার মৃত হামিদ মৃধার ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শিবালয় উপজেলার দুর্গম আলোকদিয়াচরের এক যুবতী চলমান ভোটার তালিকা ও ভোটার আইডি কার্ডের ছবি তোলার জন্য তেওতা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আসেন। একই উদ্দেশে আসা শরীফ নামের এক বখাটেও পরিষদের বাথরুমে যুবতীকে একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। এ সময় যুবতীর চিৎকারে ভোটার হতে আসা উপস্থিত লোকজন বখাটেকে আটক করে। পরে উত্তেজিত জনতা তাকে মারধর করে।

তেওতা ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল কাদের বলেন, বিষয়টি নিয়ে মানসম্মানের ভয়ে ভুক্তভোগী ও তার আত্মীয়দের কোনো অভিযোগ না থাকার কারণে শত শত লোকের উপস্থিতিতে শরীফ নামের ওই বখাটেকে শাসন করে বিষয়টি মীমাংসা করে দেওয়া হয়। পরে পরিষদ থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর তাকে উপস্থিত জনতা মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদ জানান, এ বিষয়ে কেউ আমার কাছে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

"