কোটালীপাড়ায় আ.লীগ অফিস নির্মাণে ভূমি অফিসের বাধা

প্রকাশ : ১৫ জুন ২০১৯, ০০:০০

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪নং ওয়ার্ড কার্যালয় পুনর্নির্মাণে ইউনিয়ন ভূমি অফিস থেকে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে এলাকার আওয়ামী লীগ দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১০ বছর আগে উপজেলার মনোহার মার্কেটে রাধাগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪নং ওয়ার্ড কার্যালয় নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে কার্যালয়টি নেতাকর্মীদের ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়লে তারা কার্যালয়টি পুনর্নির্মাণের কাজ শুরু করেন। এ সময় ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহসিলদার অসীম কুমার বিশ^াস ও অফিস সহকারী ফিরোজ আহম্মেদ নির্মাণ কাজে বাধা দেন। এ নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সঞ্জয় বিশ^াস বলেন, আমরা দীর্ঘদিন ধরে এই কার্যালয়ে বসে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করি। কার্যালয়টি বর্তমানে জড়াজীর্ণ হয়ে পড়ায় আমরা পুনর্নির্মাণের কাজ শুরু করি। কাজ শুরুর কিছু দিন পরে রাধাগঞ্জ ভূমি অফিসের তসিলদার অসীম কুমার বিশ^াস ও অফিস সহকারী ফিরোজ আহম্মেদ কাজে বাধা দেন এবং ১০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। এ বিষয়ে তহসিলদার অসীম কুমার বিশ^াসের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে অফিস সহকারী ফিরোজ আহম্মেদ বলেন, স্যার (তসিলদার) চিকিৎসার জন্য বর্তমানে ভারতে আছেন। আমাদের বিরুদ্ধে ঘুষ চাওয়ার যে বিষয়টি উঠেছে তাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

তিনি আরো বলেন, জেলা পরিষদ সদস্য দেবদুলাল বসু পল্টু এখানে সরকারি জায়গায় অফিস ঘর নির্মাণ করছেন। সরকারি জায়গা হওয়ায় আমরা তহসিল অফিস থেকে বাধা দিয়েছি। যুবলীগ নেতা সুমন বোস বলেন, এই ঘরটি নির্মাণে জেলা পরিষদ সদস্য দেবদুলাল বসু পল্টুর কোন সম্পৃক্ততা নেই। এটি রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের দলীয় নেতাকর্মীরা নির্মাণ করছেন।

 

"