ভেঙে গেছে আমতলীর দুই ইউপির সংযোগ সেতু স্লিপার

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৯, ০০:০০

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

মেরামতের অভাবে স্থানীয় মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে বরগুনার আমতলী উপজেলার ছোনাউঠা খালের উপর নির্মিত আয়রন সেতু। উপজেলার হলদিয়া ও সদর ইউপির মধ্যবর্তী এ সেতু স্লিপার ভেঙ্গে গেছে। স্থানীয়রা গাছের গুড়ি দিয়ে চলাচল করছেন। ফলে যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। দুই দশক আগে সেতুটি নির্মাণ করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে এলজিইডির আওতায় হালকা যান চলাচল প্রকল্পের অধীনে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। প্রকল্পটি ২০০৫ সাল পর্যন্ত কার্যকর ছিল। এরপর প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধি না করায় সেতুটির রক্ষণাবেক্ষণ এবং মেরামতে আর কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। ইতোমধ্যে সেতুটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে সেতুটির সিমেন্টের স্লিপার।

সরেজমিনে দেখা যায়, সেতুটির স্লিপার ভেঙে পড়ায় আমতলী সদর ইউপির ইসলামপুর, কলংক, হলদিয়া ইউপির ছোনাউঠা, পূর্বচিলাসহ দুটি ইউপির কমপক্ষে ১০ গ্রামের মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। এ ছাড়া ছোনাউঠা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী ও হলদিয়া ইউপির একটি অংশের জনসাধারণের চলাচলে ভোগান্তি দেখা দিয়েছে।

হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম মৃধা বলেন, জরুরি ভিত্তিতে এখানে একটি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ করা দরকার। এলজিইডিকে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে জানানো হয়েছে।

এলজিইডি আমতলী উপজেলা কার্যালয়ের প্রকৌশলী মো. নজরুল ইসলাম বলেন, গার্ডার ব্রিজ নির্মাণের জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

 

"