নগরবাড়ী-বগুড়া মহাসড়কের উল্লাপাড়া অংশ

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মহাসড়কে অটো-লেগুনা

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৯, ০০:০০

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

নগরবাড়ী-বগুড়া মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া অংশে দেদারছে চলছে নিষিদ্ধ ঘোষিত বাহনগুলো। উপজেলার শ্যামলীপাড়া বাসস্ট্যান্ড ও শাহজাদপুরের মধ্যে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চলাচল নিষিদ্ধ লেগুনা, সিএনজি, ইজিবাইক, নছিমন, করিমন, অটোরিকশা যাত্রী নিয়ে অবাধে চলাচল করছে।

এদিকে গত ২ জুন মহাসড়কে বোয়ালিয়ায় কোচ ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ১১ জন নিহত হয়। এ দূর্ঘটনার পর থেকে উল্লাপাড়া থেকে সিরাজগঞ্জ রোড (হাটিকুমরুল গোলচত্তর) মুখি লেগুনা, সিএনজিসহ থ্রিস্ট্রোক যানবহন চলাচলের নিষিদ্ধাজ্ঞায় কড়াকড়ি আরোপ করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা পুলিশের নগরবাড়ী মহাসড়কের উল্লাপাড়া অংশে তৎপরতা কম থাকার সুযোগে বাহন গুলো অবাধে চলাচল করছে। নগরবাড়ী-বগুড়া মহাসড়কের রায়গঞ্জের চান্দাইকোনা থেকে শাহজাদপুরের বাঘাবাড়ী পর্যন্ত মহাসড়ক অংশ হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার আওতায় বলে যানা যায়। কিন্তু শ্যামলীপাড়া ও শাহজাদপুরের মধ্যে চলাচলা নিষিদ্ধ বহানগুলো অবাধে চলছে। এসব বাহনের চালোকেরা চলাচলের পথে হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা পুলিশের মহাসড়কে কোন টহল কিংবা চেকপোষ্ট আছে কিনা এর খোজ খবর নিয়েই চলছে বলে জানা যায়।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুল কাদির জিলানি জানান, মহাসড়কে তার থানা পুলিশের নজরদারি, টহল ব্যবস্থা ও বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসানো হয়ে থাকে। চলাচল নিষিন্ধ এমন বাহন চলাচল অবস্থায় পেলে তাৎক্ষণিকভাবে এর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়। প্রতিদিনই নিষিদ্ধ বাহন আটক করা হচ্ছে। তিনি আরো জানান, বনপাড়া, বগুড়া ও নলকা মহাসড়কে টহল ব্যবস্থা জোরালোভাবে চলছে। নগরবাড়ী মহাসড়কে প্রতি দিনই টহল ও চেকপোস্ট বসানো হয়ে থাকে যাতে চলাচল নিষিদ্ধ বাহনগুলো চলতে না পারে। প্রয়োজনে এ মহাসড়কে আরো একাধিক জায়গায় চেকপোস্ট বসানো হবে।

 

"