চট্টগ্রাম বিভাগের অধীন ৪ উপজেলায় নির্বাচিতদের শপথ

প্রকাশ : ২৩ মে ২০১৯, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম বিভাগের অধীন চার উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শপথ গ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে কুমিল্লা জেলার চান্দিনা, মেঘনা ও বরুড়া উপজেলার সব পদ এবং রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার কাপ্তাই উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ করেন। গতকাল বুধবার ১২টায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের সম্মেলন কক্ষে তাদের ১০ জনপ্রতিনিধির শপথ বাক্য পাঠ করান প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।

শপথ নেওয়া উপজেলা জনপ্রতিনিধি হলেন কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার চেয়ারম্যান তপন বক্শী, ভাইস চেয়ারম্যান মো. জহিরুল ইসলাম মুন্সী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়া আক্তার; মেঘনা উপজেলার চেয়ারম্যান মো. সাইফুল্লাহ মিয়া রতন সিকদার, ভাইস চেয়ারম্যান মিলন সরকার ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দিলারা শিরিণ; বরুড়া উপজেলার চেয়ারম্যান এএনএম মইনুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান মো. কামাল হোসেন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন নাহার। এদিকে রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলা থেকে শপথ নেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উমেচিং মারমা।

বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) দীপক চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা ও বিভাগীয় কমিশনার অফিসের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) শ্রাবস্তী রায়। অনুষ্ঠানে কাপ্তাই ও বরুড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপস্থিত ছিলেন। এ সময় শপথ গ্রহণকারীরা নিজের অনুভূতি প্রকাশ করেন। পরে নবনির্বাচিতদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানান প্রধান অতিথি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগকে আরো শক্তিশালী করতে উপজেলা পরিষদের প্রত্যেক চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানকে সৎ ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। জনগণের ভোটে আপনারা নির্বাচিত হয়েছেন। জনগনের কাক্সিক্ষত সেবা নিশ্চিত করতে হবে। সরকারের দেওয়া আমানত যাতে খেয়ানত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।’ তাদের দায়িত্ব উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে সরকারি সেবা জনগণের দৌঁড়গোড়ায় পৌঁছে দিয়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে হবে। আমরা সকলে মিলে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের মহাসড়কে সামিল হলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণ সম্ভব হবে।’

 

"