এইচএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা

বোয়ালমারীতে শিক্ষার্থীদের থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

প্রকাশ : ২২ মে ২০১৯, ০০:০০

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

ফরিদপুরের বোয়ালমারী সরকারি ডিগ্রি কলেজে ২০১৯ সালের অনুষ্ঠিত এইচএসসির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। কলেজের পদার্থবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক উত্তম কুমার দাস এই টাকা নিয়েছেন বলে শিক্ষার্থীরা জানায়।

জানা গেছে, চলতি বছর ওই কলেজ থেকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষায় ৩৯৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।

গত সোমবার দুপুরে সরেজমিনে জানা যায়, সরকারি কলেজ বিজ্ঞানাগারের পাশে অনুষ্ঠিত ব্যবহারিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থী প্রতি ৩০০ টাকা করে নিচ্ছে ওই প্রভাষক। ৩৯৪জন শিক্ষার্থীর নিকট থেকে মোট এক লাখ ১৮ হাজার ২০০ টাকা হাতিয়ে নেয় ওই কলেজের প্রভাষক উত্তম কুমার।কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী জাকির হোসেন জানায়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষার কথা বলে উত্তম কুমার দাস স্যার আমাদের কাছ থেকে আগেই তিনশত টাকা করে নিয়েছে। একই কলেজের শিক্ষার্থী বিল্লাল শেখ জানায়, উত্তম স্যারকে এই পরীক্ষার জন্য ২৯০ টাকা দিয়েও আমরা পার পাইনি। স্যারকে পুরো ৩০০ টাকাই দেওয়া লাগছে আমাদের।

এ ব্যাপারে কলেজ কর্তৃক গঠিত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ড. আবদুল কাইয়ুম বলেন, আমি আপনাকে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা (৩৯৪) ছাড়া আর কিছু বলতে পারবো না। আপনি অধ্যক্ষ স্যারের সাথে কথা বলেন।

ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়ে অভিযুক্ত প্রভাষক উত্তম কুমার দাসের কাছে জানতে চাইলে এ বিষয়ে তিনি কিছু বলতে রাজি হননি। তবে, এ প্রতিবেদককে কেউ এ কলেজে পাঠিয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। বোয়ালমারী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড. আব্দুস ছাত্তার মজুমদার বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহারিক পরীক্ষায় টাকা নেওয়ার কোন নিয়ম নাই। টাকা নিয়েছে কিনা আমি জানি না।

 

"