দেশে আসার ১০ ঘণ্টার মধ্যে লাশ হলেন জামাল

অভিযোগের তীর নিহতের স্ত্রীর দিকে

প্রকাশ : ১৬ মে ২০১৯, ০০:০০

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি

যশোরের বেনাপোলে বিদেশ থেকে আসার ১০ ঘণ্টার মধ্যে জামাল হোসেনকে (৩৬) কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। প্রেমিকদের সহযোগিতায় প্রবাসীর স্ত্রী এই হত্যাকা- ঘটিয়েছেন বলে নিহতের পরিবারের অভিযোগ। গত মঙ্গলবার রাতে বেনাপোল পোর্ট থানার ধান্যখোলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত জামাল হোসেন ওই গ্রামের হবিবর রহমানের ছেলে ও ১৫ বছর যাবৎ মালেশিয়া প্রবাসী।

ঘটনার দিন মঙ্গলবার বেলা ২টার সময় মালয়েশিয়া থেকে বাড়ি আসেন জামাল। আর রাত ১২টার দিকে তার বুকে পেটে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। এরা হলেন নিহতের স্ত্রী আয়েশা খাতুন, শ্বশুর রিয়াজুল ইসলাম টুকু ও শাশুরি ফুলবুড়ি।

জামালের পিতা হবিবর রহমান জানান, একই গ্রামের রিয়াজুলের মেয়ে আয়েশার সঙ্গে প্রায় ১৫ বছর আগে জামালের বিয়ে হয়। তারপর সে মালয়েশিয়ায় চলে যায়। এর মধ্যে তার ছেলে ৩ বার বাড়ি এসেছেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, প্রবাসে থাকার কারণে আয়েশা এলাকার বিভিন্ন ছেলের সঙ্গে প্রেম করত। প্রায় কারো না কারো সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে দুই তিন দিন পর বাড়ি ফিরতো।

স্থানীয়রা জানায়, স্বামী বিদেশ থাকার সুযোগে আয়েশা চলাচলে বাধসাদের ব্যাপার ছিল না। এর আগেও জামালকে হত্যার চেষ্টা করা হয় বলে এলাকার লোকজন অভিযোগ করেন।

জানতে চাইলে বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই (তদন্ত) সৈয়দ আলমগীর হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ও স্ত্রীর পিতামাতাকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্ত শেষে জানা যাবে কারা এ হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িত। তদন্তের আগে কিছুই বলা যাবে না।

 

"