আবারও সোনামসজিদ বন্দরে রাজস্ব ঘাটতি

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দরে চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে গত ৯ মাসে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। গত ৯ মাসে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩৩৭ কোটি ২ লাখ ৭১ হাজার টাকা। কিন্তু রাজস্ব আদায় হয়েছে ২১ কোটি ১৫ লাখ ৯৬ হাজার টাকা। যা ২০১৮-১৯ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১১৭ কোটি ৮৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা রাজস্ব আয় কম।

এদিকে সোনামসজিদ সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠনের পর বন্দরে বেশ কিছুদিন ধরে কার্যক্রম স্বাভাবিক থাকলেও চলতি মাসে আবারো ভাটা পড়েছে। আমদানি হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের অল্পসংখ্যক ফল।

সোনামসজিদ কাস্টমস সূত্রে জানা যায়, গত ৯ মাসে স্থলবন্দর দিয়ে যেসব পণ্যে রাজস্ব আয় বেশি হয় সেগুলোর কিছু কিছু আমদানি হচ্ছে। স্থলবন্দরের পানামা ইয়ার্ডের ভেতরে পণ্য ছাড়ের ক্ষেত্রে ত্রুটি ও কাস্টমসের জনবল সংকটে যথাসময়ে পণ্য ছাড়ে বিলম্ব হয়ে থাকে। সেই সাথে রয়েছে বন্দরে চাঁদাবাজির অভিযোগও। ফলে এই বন্দর দিয়ে অনেকেই আমদানি করতে চান না।

এ বিষয়ে সোনামসজিদ স্থলবন্দরের সহকারী কাস্টমস কমিশনার বিল্লাল হোসেন বলেন, এই বন্দরে আমদানিকৃত বিভিন্ন পণ্যে শতভাগ রাজস্ব আদায় করার কারণে ব্যবসায়ীরা নানা অজুহাতে অন্য বন্দরে চলে যান।

 

"