মুরাদনগরে চায়ের দোকানে আলিম পরীক্ষা, পরে বহিষ্কার

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় চায়ের দোকানে চলছে আলিম (এইচএসসি সমমান) পরীক্ষা। উপজেলার শুশুন্ডা মাদরাসায় পরীক্ষা কেন্দ্র সংলগ্ন চায়ের দোকানে বসে এক পরীক্ষার্থী প্রশ্ন দেখে বই থেকে খাতায় উত্তর লিখে আলিম পরীক্ষা দিচ্ছে। তবে পরে ওই শিক্ষার্থীকে বহিস্কার করা হয়েছে বলে জানান কেন্দ্র সচিব। কেন্দ্রটির বিরুদ্ধে নকল, প্রশ্ন ও উত্তরপত্র বাহিরে নেয়াসহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ফিকাহ্ ২য় পত্রের পরীক্ষা চলাকালে শুশুন্ডা ইসলামিয়া আলিম মাদরাসা কেন্দ্র থেকে উত্তরপত্র বের করে শুশুন্ডা আলিম মাদরাসার ছাত্র হাবীবুল হক কেন্দ্রের পাশর্^বর্তী একটি চায়ের দোকানে বসে পরীক্ষা দিচ্ছেন। পরীক্ষার খাতা নিয়ে লিখার সময় অন্য এক জন মোবাইল ফোনে এ দৃশ্য ধারন করে। পরে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে পোষ্ট করলে মূহুর্তের মধ্যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়। এতে সাধারন পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্ঠি হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, কেন্দ্র সচিব ও দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের অবহেলার কারনে পরীক্ষা শুরুর পর থেকেই এমন কার্যক্রম চলছে।

শুশুন্ডা ইসলামিয়া আলিম মাদরাসার অধক্ষ্য ও কেন্দ্র সচিব মাওলানা গিয়াস উদ্দিন বলেন, অতিরিক্ত উত্তরপত্র বাহিরে নেয়ার অভিযোগে হাবীবুল হক নামের এক শিক্ষার্থীকে বহিস্কার করা হয়েছে। তবে কেন্দ্রে কোন ধরনের নকল হচ্ছে না। কেন্দ্রে ইউএনওর প্রতিনিধি সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, আমি সকল পরীক্ষার্থীদের খাতা যাচাই করেছি কিন্তু খাতা বাহিরে নেয়ার কোন প্রমান পাওয়া যায়নি। উপজেলা মাধ্যামক শিক্ষা কর্মকর্তা সফিউল আলম তালুকদার বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। বিষয়টির ব্যাপারে খোঁজ নিচ্ছি। ইউএনও মিতু মরিয়ম সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হয়েছে।

 

"