পুলিশ ও যুবকদের ধস্তাধস্তি

সিরাজদিখানে যুবক গুলিবিদ্ধ কনস্টেবল আহত

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার ঢাকা-নবাবগঞ্জ সড়কের কামারকান্দা নামক স্থানে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশের সঙে একদল যুবকের ধস্তাধস্তির খবর পাওয়া গেছে। এ সময় পুলিশের শর্টগানের গুলিতে এক যুবক গুলিবিদ্ধ ও এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ৪ যুবককে আটক করেছে। উপজেলার চিত্রকোট ইউনিয়নের কামারকান্দা পুলিশ বক্সের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ যুবক শাহাদাত হোসেন শ্যামলকে (২০) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও সিরাজদিখান থানার কনস্টেবল রাসেলকে আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আটককৃতরা হলো সজিব মন্ডল (২৩), কৃষ্ণ বাড়ৈ (২৪), গোবিন্দ সিদ্ধা (২৪) ও জনি সিদ্ধা (২০)। আটককৃতদের বাড়ি কেরাণীগঞ্জ মডেল থানা ও নবাবগঞ্জে। গুলিবিদ্ধ যুুবক শ্যামল কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন ঘাটারচর গ্রামের তাহের আলীর ছেলে।

সিরাজদিখান থানার ওসি ফরিদউদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে তিনটি মোটর সাইকেলযোগে ৬ জন যুবক কেরাণীগঞ্জ থেকে নবাবগঞ্জ যাচ্ছিল। এ সময় সিরাজদিখান উপজেলার কামারকান্দা পুলিশ বক্সের সামনে পুলিশ মোটর সাইকেল আরোহীদের থামার জন্য সিগন্যাল দেয়। কিন্তু মোটর সাইকেল আরোহীরা পুলিশের সিগন্যাল অমান্য করে নবাবগঞ্জের দিকে চলে। কিছুক্ষন পর নবাবগঞ্জ থেকে মোটর সাইকেল আরোহীরা কেরানীগঞ্জের উদ্দেশ্যে ফিরছিল। পুনরায় পুলিশ বক্সের সামনে এলে সিগন্যাল পেয়ে মোটর সাইকেল আরোহী সেখানে থামে। এ সময় মোটরসাইকেল আরোহী যুবকদের সঙে পুলিশের কথা কাটাকাটি হয়, উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তি বেঁধে যায়। এক পর্যায়ে পুলিশের শর্টগান থেকে অসাবধানতাবশত গুলি বের হয়ে যায়। এতে শ্যামল নামে এক যুবকের ডান পায়ের পাতায় গুলিবিদ্ধ হয়। এছাড়া পুলিশ কনস্টেবল রাসেল আহত হয়।

 

"