বিরলে স্কুল বন্ধ রেখে মেলার নামে হাউজি-জুয়া

প্রকাশ | ১০ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুরে বিরলে ধুকুরঝাড়ী মেলায় চলছে হাউজি ও জুয়া। তবে স্কুল বন্ধ রেখে হাউজি খেলার নামে প্যান্ডেল স্থাপন করে চলছে জুয়ার আসর। এমটা অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। উপজেলার ধুকুরঝাড়ী দ্বিমুখী উচ্চবিদ্যালয় ও প্রাইমারি স্কুলের মাঠ দখল করে চালানো হচ্ছে মুক্তা র‌্যাফেল ড্র এবং হাউজি খেলা। এতে করে বিদ্যালয়ে পাঠদান থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। জোরপূর্বক চালানো হচ্ছে জুয়ার মেলা বলে দাবি করেছেন ধুকুরঝাড়ী দ্বিমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শ্রী বিমল চন্দ্র দাস। প্রধান শিক্ষক জানান, কোনো ধরনের নোটিশ বা চিঠি ছাড়াই উচ্চবিদ্যালয় বিল্ডিং ও প্রাইমারি বিন্ডিংসহ মাঠ দখল করে জোর পূর্বক চালানো হচ্ছে এই মেলা। তিনি আরো জানান, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক এ ব্যাপারে আমাকে ডেকেছিলেন। আপনাদের যা বলেছি জেলা প্রশাসককে একই কথা বলেছি।

শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা সাংবাদিকদের অভিযোগ করে বলেন, ধুকুরঝাড়ী মেলা এটি একটি ঐতিহ্যবাহী মেলা। এই মেলা প্রতিবছর এখানে চালানো হয়। এতে করে আমরা খুবই খুশি। কিন্তু আমাদের ছেলে মেয়েদের পাঠদান থেকে বঞ্চিত রেখে জোর পূর্বক বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে জুয়ার মেলায় পরিনত করায় আমরা অত্যন্ত দুঃখিত এবং মর্মাহত। সেই সঙ্গে আমাদের ছেলে মেয়েদের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়েও আমরা অত্যন্ত চিন্তিত।

এ বিষয়ে ধুকুরঝাড়ী মেলা কমিটির সভাপতি ৩নং ধামইড় ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোসলেম জানান, সকল নিয়মনীতি মেনে আমরা এ মেলায় হাউজি ও র‌্যাফেল ড্র চালাচ্ছি। এতে করে কারো অসুবিধা হবে বলে আমরা মনে করছি না।

বিরল থানা অফিসার ইনচার্জ এ টি এম গোলাম রসুল জানান, ধুকুরঝাড়ী মেলার অনুমতি আছে তবে হাউজি ও র‌্যাফেল ড্রসহ কোন প্রকার জুয়ার অনুমতি নাই।

ধুকুরঝাড়ী দ্বি-মূখী উচ্চবিদ্যালয় ও প্রাইমারী স্কুল বিল্ডিং মাঠ দখল করে হাউজি ও র‌্যাফেল ড্র চালানোর অনুমতি রয়েছে কি না জানতে চাওয়া হলে বিরল ইউএনও মো. আহসান হাবীব জানান, হাউজি ও র‌্যাফেল ড্র চালানোর কোন প্রকার অনুমতি নেই।

 

"