দক্ষিণাঞ্চলে জেকে বসেছে শীত : জনজীবন বিপর্যস্ত

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

এম আর অভি, বরগুনা

বরগুনার দক্ষিণাঞ্চলে শীতের তীব্র প্রকোপ জনজীবন বিপর্যস্ত। কয়েক দিনের শৈত্য প্রবাহ ও ঘন কুয়াশার কারণে এ অঞ্চলে ঝেঁকে বসেছে শীত। এদিকে, তীব্র শীতে সবচেয়ে বেকায়দায় পড়েছেন হত দরিদ্র মানুষরা। শীতে থেকে বাঁচতে সরকার ও সমাজের বিত্তবানদের কাছ থেকে কম্বল ও গরম কাপড় প্রত্যাশা তাদের।

শহরের থানা পাড়ার বাসিন্দা মুন্নী বেগম জানান, এ প্রচন্ড শীতে সরকারি ও বেসরকারিভাবে আমরা কম্বল বা গরম কাপড় পাইনি। গরম কাপড় না থাকায় পরিবারের চার সদস্যের খুব কষ্ট হচ্ছে বলে জানান তিনি।

বেকারী শ্রমিক বটতলার বাসিন্দা আবুল কালাম জানান, বর্তমানে অনেক শীত পড়ছে। সরকার যদি কম্বল বা গরম কাপড় দিয়ে সাহায্য করে তাহলে আমরা বেঁচে থাকতে পারবো।

বাইনচকি গ্রামের ভিক্ষুক পিয়ার বেগম জানান, শীতে গরম কাপড় কম্বল কিছুই পায়নি। তার দাবি শীতের প্রকোপ ও ভিক্ষাবৃত্তির হাত থেকে নিস্তার পেতে সরকারি সাহায্য দরকার। ক্রোক গ্রামের ভিক্ষুক ফুলবানু (৯০) জানান, এই শীতে সরকারিভাবে এখন পর্যন্ত কোন কম্বল-টম্বল পাইনি। কেনার পয়সাপাতি নেই। পয়সার অভাবে পরনের কাপড়ও কিনতে পারিনা।

বরগুনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ জানান, আমরা বিশেষভাবে বরগুনা সদরসহ কিছু শীতার্তের মাঝে এখন পর্যন্ত ২ হাজার পিস কম্বল বিতরণ করেছি । এছাড়াও স্ব-স্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণ শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন বলে জানান তিনি।

"