ইবিতে মেধা তালিকায় আসন ফাঁকা ৬৩১টি অপেক্ষমাণদের সাক্ষাৎকার শুরু আজ

প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ইবি প্রতিনিধি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষ স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের মেধাতালিকা থেকে ভর্তি কার্যক্রম শেষ হয়েছে। মেধাতালিকা থেকে ভর্তির পর বিভিন্ন বিভাগে এখনো ৬৩১টি আসন ফাঁকা রয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডিমিক শাখার পরিচালক এটিএম এমদাদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

একাডিমিক শাখা সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ নভেম্বর থেকে ভর্তি পরীক্ষায় মেধাতালিকায় স্থানপ্রাপ্তদের সাক্ষাৎকার ও ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়। যা চলে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এ বছর বিশ^বিদ্যালয়ের পাঁচটি অনুষদের অধীনে ৩৩টি বিভাগের দুই হাজার ২৭৫টি আসনের মধ্যে মেধাতালিকা থেকে ভর্তি হয়েছেন এক হাজার ৬৪৪জন শিক্ষার্থী। ভর্তি শেষে বিভিন্ন বিভাগে এখনো আসন ফাঁকা রয়েছে ৬৩১টি। এরমধ্যে ধর্মতত্ত্ব অনুষদভূক্ত ‘এ’ ইউনিটে ২৪০টি আসনের মধ্যে ১৮টি, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান এবং আইন অনুষদভূক্ত ‘বি’ ইউনিটে এক হাজার ৩৫টি আসনের মধ্যে ২৫৬টি, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভূক্ত ‘সি’ ইউনিটে ৪৫০টি আসনের মধ্যে ১১২টি এবং ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভূক্ত ‘ডি’ ইউনিটে ৫৫০টি আসনের মধ্যে ২৪৫টি ফাঁকা রয়েছে। এ দিকে মেধাতালিকা হতে ভর্তির পর আসন খালি থাকা সাপেক্ষে অপেক্ষমান তালিকার সাক্ষাতকারের তারিখ নির্ধারণ করেছে স্ব স্ব ইউনিট সমন্বয়কারীরা। সংশ্লিষ্ট ইউনিট সমন্বয়কারী সূত্রে জানা যায়, আজ রোববার, ৯ ডিসেম্বর ধর্মতত্ত্ব অনুষদভূক্ত ‘এ’ ইউনিটে অপেক্ষমান তালিকায় থাকা শিক্ষার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে। সাক্ষাতকার শেষে আগামী ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করতে হবে।

ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভূক্ত ‘সি’ ইউনিটের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৭ ডিসেম্বর। এই ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম শেষ করতে হবে ২৩ ডিসেম্বরের মধ্যে।

এছাড়া মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ এবং আইন অনুষদভূক্ত ‘বি’ ইউনিটের সক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২২ ডিসেম্বর। ওইদিন ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভূক্ত ‘ডি’ ইউনিটেরও সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে। সাক্ষাৎকার শেষে আগামী ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, অপেক্ষমান তালিকার সাক্ষাৎকার ও ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.iu.ac.bd  থেকে পাওয়া যাবে।

"