সরকারি জমিতে ইটভাটা

উচ্ছেদের দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

কাশিয়ানী (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে সরকারি জমিতে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা একটি ইটভাট উচ্ছেদের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকার সাধারণ মানুষ। গতকাল শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার কালনা ঘাটের বটতলা এলাকায় ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

এ সময় বক্তব্য দেন লোহাগড়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন মৃধা, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ শেখ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি সদস্য সুরুজ মোল্লা, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সুজন খান প্রমুখ।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার কালনা ফেরিঘাট এলাকায় ৪৪নং চর-জাজিরা কালনা মৌজায় মহাসড়ক সংলগ্ন সরকারি জমিতে অবৈধভাবে স্থাপিত ‘মা-বাবা’ নামের ওই ইট ভাটাটিতে নিয়মিত কাঠের জ্বালানি এবং সরকারি বিধি উপেক্ষা করে ব্যারেল চিমনি ব্যবহৃত হচ্ছে। এলাকার নিরীহ কৃষকদের ভয়ভীতি দেখিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া প্রায় ১০ একর কৃষি জমি নষ্ট করে ওই ইট ভাটার কাজ চলছে। আর ওই ভাটাতে জ্বালানী কাঠের যোগান দিচ্ছে একটি সংঘবদ্ধ চোরচক্র। যারা রাতের আঁধারে এলাকার সরকারি গাছ কেটে নিচ্ছে। এতে পরিবেশ দূষন ও জনস্বাস্থ্যের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।

বক্তারা আরো বলেন, এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রীর সুপারিশসহ পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবরে অভিযোগ করেছিলেন তারা। পরিবেশ অধিদপ্তর ওই ইটভাটাটি ভেঙ্গেও ফেলে। কিন্তু ভাটার মালিক লোহগড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বদরুদ্দিন খন্দকার ভাঙ্গা অংশ মেরামত করে পূনরায় কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। বক্তারা, ইটভাটাটি বন্ধ করে সরকারি কৃষি জমি উদ্ধারসহ পরিবেশের ভারসাম্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার দাবি জানান।

"