দুই পক্ষের সংঘর্ষ : আহত ১০

প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার বালীগ্রাম ইউনিয়নে কথা কাটা কাটির জেরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছে বলে জানা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

সরেজমিনে গিয়ে ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত শনিবার উপজেলার বালীগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মো. জাকির খান এর অফিসে একেই এলাকার অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য গোলাম আলী আকন, ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি ও ইউপি সদস্য মো. ফারুক আকন এক সঙ্গে বসে আলাপ করছিলেন। তাদের মধ্যে কথা কাটা কাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থক পক্ষের লোকজন ও অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য গোলাম আলী ও ইউপি সদস্য ফারুক আকনের বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা ঘরের ভিতর ঢুকে আসবাপত্র ভাংচুর ও তাদেরকে মারধর করে। এতে আহত হন মোহাম্মদ আলী (৫৫), মো. গোলাম আলী (৩৭), নাইম (২০), আক্কাস আকন (৫০), হালিম হাওলাদার (৪৫), মাসুদ মুন্সি (৬০) সহ ১০ জন। তাদেরকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এতে দোকান, বাড়িঘর, অফিস ভাংচুর, নগদ টাকাসহ স্বর্ন লুটের অভিযোগ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, অভিযোগটি মিথ্যা, গোলাম আলী আকন নিবন্ধনের কাগজ করার জন্য পরিষদে আসেন। এ সময় পরিষদের উদ্যোগতা সুকুমার ঘরামী ইন্টারনেট সমস্যার জন্য কাজটি বিকেলে করতে চাইলে তার সঙ্গে কথা কাটা কাটি হয় এবং আমার অফিসে ভাংচুর করে। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বদরুল আলম মোল্লা (সদর সার্কেল) মাদারীপুর, ঘটনাস্থান পরির্দশন করেন।

"