নারায়ণগঞ্জে ভোট নিয়ে তরুণ প্রজন্মের ভাবনা

প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আব্দুল আলীম, নারায়ণগঞ্জ

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের চোখে ঘুম নেই। চূড়ান্তভাবে কে হচ্ছেন নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনে একক প্রার্থী, নির্বাচনের পরিবেশ কেমন হবে, নির্বাচন উৎসবমুখর হবে কি না এমন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে জেলার বিভিন্ন কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে। তরুণ প্রজন্মের মনোভাব জানতে কয়েকজন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া নতুন ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে প্রতিদিনের সংবাদের প্রতিবেদক।

সরকারী তোলারাম কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র রফিকুল হাসান বলেন, এই প্রথমবার ভোট দিবো তাই ভালো লাগছে। একটি দেশের সরকারের কাজের একটি কিছু পজেটিভ দিক থাকে আবার কিছু নেগেটিভ দিকও থাকে। আগের বছরগুলোকে পর্যালোচনা করলে আমার কাছে যাকে ভালো মনে হবে তাকে ভোট দিবো। আশা করছি একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে।

আদমজী সরকারী এম ডব্লিউ কলেজের ইন্টার দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মনির হোসেন বলেন, বিগত ১০ বছরে দেশের অনেক উন্নতি করেছে আ.লীগ। তাই প্রথমবারের ভোটটা নৌকায় দিব। দেশের উন্নতি যা হয়েছে তা আ.লীগের অবদান এবং ভবিৎষতের যা হবে আ.লীগের হাত ধরেই হবে। খুবই শৃঙ্খল ভাবে ভোট হবে বলে আশা করছি। দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র কাউসার আহাম্মেদ বলেন, দেশের একজন নাগরিক হিসেবে ভোট দেয়া নিয়ে আনন্দ লাগছে। শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট দিতে পারবো বলে আশা করছি। যে ভালো কাজ করবে তাকেই ভোট দিবো। সে বিএনপি হোক বা আ.লীগ। আমরা দেশের উন্নতি চাই তা সে যে দলই হোক। কাজী ফজলুল হক ওমেনস কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের ব্যবস্থাপনা বিভাগের ছাত্রী আয়শা আক্তার বলেন, এবার কি হয় জানি না। আশা করি একজন যোগ্য প্রার্থী মনোনয়ন পাবেন এবং যে দেশের জন্য কাজ করবে তাকেই ভোট দিবো। সমাজের উন্নয়ন হচ্ছে হবে, কিন্তু আগামীতে কারা আসবে এবং সমাজের জন্য কতটুকু ভালো হবে আল্লাহ জানেন। তবে সমাজের ব্যবস্থার একটি পরিবর্তনের দরকার আছে। ভোট দিবো, কাকে দিবো সেটা এখন বলবো না। কদমরসূল সরকারী কলেজের অর্নাস ২য় বর্ষে ছাত্র রাব্বি বলেন, প্রথমবারের মতো ভোট দিবো তাই আনন্দ হচ্ছে। কিন্তু চিন্তাও লাগছে। গত নির্বাচন দেখে কিছুটা আতঙ্কিত আছি। কারন মা, বাবাকে দেখেছি ভোট কেন্দ্র হতে ভোট না দিয়েই ফিরে আসতে। আশা করছি এই বার শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট দিবো। প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা নিলে ভয়ের কোন বিষয় নেই। সমাজের জন্য যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দিবো।

"