ইবির ভর্তি পরীক্ষা

প্রশ্নপত্রের অসংগতি খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

ইবি প্রতিনিধি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষায় ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের প্রশ্নপত্রে অসংগতি পাওয়া গেছে। প্রশ্নপত্রের সঙ্গে উত্তরপত্রের অমিল থাকায় বিষয়টি নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একই সঙ্গে ওই ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা কমিটি বাতিল করে নতুন কমিটিও গঠন করেছে কর্তৃপক্ষ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ও উত্তরপত্রের ক্রমবিন্যাসে অমিল থাকায় জটিলতা সৃষ্টি হয়। ফলে একেক কক্ষে একেক নিয়মে পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। এর ফলে পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানায় শিক্ষক ও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে আলোচনা সভায় বসে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটি। প্রশ্নপত্রে ভুলের কারণ ও করণীয় ঠিক করতে তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ওই সভায় থেকে। একই সঙ্গে বাতিল করা হয় ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা কমিটি। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. জাকারিয়া রহমানকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে প্রশাসন। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম, আইন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলাম, হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের অধ্যাপক ড. জাকির হোসেন এবং ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মণ। তদন্ত কমিটিকে আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা কমিটি বাতিল করে নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. জাকারিয়া রহমানকে ইউনিট সমন্বয়কারী করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান এবং ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-উর-রশিদ আসাকারী বলেন, ‘সি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা কমিটি সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থ হয়েছে।

"