কাঁঠালবাড়ী লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাট

মাদারীপুরের কাওড়াকান্দি ঘাটে সাময়িক স্থানান্তর

প্রকাশ : ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি

মাদরীপুরের শিবচর কাঁঠালবাড়ীর লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাটটি বন্ধ রেখে সাময়িক সময়ের জন্য কাওড়াকান্দি ঘাটে স্থানান্তরিত হচ্ছে। কাঁঠালবাড়ী ঘাটে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে ঘিরে সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে এ সিধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের আসা-যাওয়ায় যেন কোনো বিড়ম্বনার শিকার না হন সে কারণে কাওড়াকান্দি পুরাতন ঘাটটি ব্যবহার করার জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে।

কাঁঠালবাড়ির ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ফেরিঘাট থেকে কাওড়াকান্দি (পুরাতন ঘাট) ঘাটে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে ঘাট দুটি।

গতকাল শনিবার ভোর ৬টা থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাট কাওড়াকান্দিতে নেওয়া হয়েছে। আজ রোববার রাত ১২টা পর্যন্ত শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ির পরিবর্তে শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি ঘাট ব্যবহার হবে লঞ্চ ও স্পিডবোটের জন্য।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ি লঞ্চ ঘাট সূত্র জানান, গতকাল শনিবার ভোর থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোটের যাত্রীদের কাওড়াকান্দি ঘাট থেকে পারাপারের বিষয়টি বলা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাট কাওড়াকান্দিতে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী লঞ্চ ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, ‘গতকাল শনিবার ভোর থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাট কাওড়াকান্দিতে নেওয়া হচ্ছে। গত শুক্রবার সারাদিনই যাত্রীদের বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। যাতে করে লঞ্চ ও স্পিডবোটের যাত্রীরা কাঁঠালবাড়ী ঘাটে না আসে।’

সহকারী পুলিশ সুপার (শিবচর সার্কেল) মো. সোনাহর আলী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর জনসভা স্থল কাঁঠালবাড়ি ঘাটে। তাই সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে সাধারণ যাত্রীদের পারাপারের জন্য গতকাল শনিবার সকাল থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাট দুটি কাওড়াকান্দিতে নেওয়া হচ্ছে। এর পাশাপাশি দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের চলাচলে যাতে অসুবিধা না হয় সে কারণে লঞ্চ ও স্পিডবোট পুরাতন কাওড়াকান্দি ঘাটি চালু রাখা হয়েছে।’

তিনি আরো জানান, আজ রোববার রাত ১২টা পর্যন্ত ঘাট দুটি কাওড়াকান্দিতে থাকবে। আগামী সোমবার সকাল থেকে কাঁঠালবাড়ি থেকেই যাত্রীরা পারাপার হতে পারবে। তবে ফেরিঘাট কাঁঠালবাড়ি ঘাটেই থাকছে এবং ফেরি চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

 

"