মাদ্রাসাছাত্রীসহ চার স্থানে চারজনের লাশ

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

রাজশাহীর পদ্মা থেকে কিশোরীর অর্ধগলিত লাশ, কক্সবাজারের পেকুয়ায় মাদ্রাসাছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ, সাতক্ষীরার তালায় মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাত এক বৃদ্ধের লাশ এবং চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে অজ্ঞাত এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

রাজশাহী : রাজশাহী নগরীর শ্রীরামপুর এলাকার পদ্মা’র তীর থেকে অজ্ঞাত এক কিশোরীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমাবার ঘটনাটি ঘটে।

ওসি হাফিজুর রহমান জানান, নগরীর শ্রীরামপুর পুলিশ লাইন এলাকায় পদ্মা নদীতে মরদেহটি ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যুর (ইউডি) মামলা হয়েছে।

পেকুয়া (কক্সবাজার) : কক্সবাজারের পেকুয়ায় কাউছার বেগম নামে এক মাদরাসা শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের মিয়ার পাড়া এলাকার একটি বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত কাউছার বেগম ওই এলাকার মৃত মাহাবুবুর আলমের মেয়ে। উপ পরিদর্শক আশিকুর রহমানে জনান, গতকাল পরিবারের সদস্যদের অগোচরে কাউছার বেগম ঘরের চালার সাথে গলায় ফাঁস দেয়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় থানায় অপমুত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

তালা (সাতক্ষীরা) : সাতক্ষীরার তালায় তেঁতুলিয়া এলাকা থেকে অজ্ঞাত মানুসিক ভারসম্যহীন এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল জানান, অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই ব্যক্তি (৫০) গত এক সপ্তাহ যাবৎ তেঁতুলিয়া এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিলো। গতকাল তেঁতুলিয়া এলাকার একটি ধান ক্ষেতে মরদেহটি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা।

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে রোকসানা (১৭) নামের পরিচয়হীন এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. আনিছুর রহমান জানান, মাথা ব্যাথা নিয়ে মেয়েটি হাসপাতালে ভর্তি হয়। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে ভর্তি করি। রাত ৮টা ৫০ মিনিটে মেয়েটি মারা যায়। ভর্তির হওয়ার সময় মেয়েটি তার নাম রোকসানা, পিতা- অহিদুল ইসলাম ওরফে অহিদ, উপজেলা- হবিগঞ্জ, জেলা- সিলেট বলে জানায়। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়েটি রাতে মারা যায়। ওসি মো. আলমগীর হোসেন রনি জানান, মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

"