দুপচাঁচিয়ায় গৃহবধূকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়া দুপচাঁচিয়া উপজেলায় আফরুজা বেগম (২৬) নামের এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি গত বুধবার রাতে উপজেলার নির্ভিত পল্লীর তালোড়ার বড়চাপড়া গ্রামে ঘটে। নিহত গৃহবধূ ওই গ্রামের ক্ষুদে ব্যবসায়ী আবদুল মান্নানের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তালোড়া ইউনিয়নের বড়চাপড়া গ্রামের ক্ষুদে ব্যবসায়ী আবদুল মান্নান গত দুই দিন পূর্বে ব্যবসায়ের কাজে বাহিরে যায়। এ সময় তার স্ত্রী আফরুজা বেগম দুই মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে অবস্থান করে। ঘটনার দিন গত বুধবার রাতে ছোট মেয়ে মিনি (৫) কে সঙ্গে নিয়ে আফরুজা বেগম ঘুমিয়ে পড়ে। রাতে দুর্বৃত্তরা তার ঘড়ের টিনের দরজা কেটে ভেতরে প্রবেশ করে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। পরে জবাই করে হত্যা করে।

খবর পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং তার লাশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে ওসি (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম গৃহবধূ আফরোজা বেগমকে জবাই করে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশের নিচের অংশ সম্পূর্ণ উলঙ্গ ছিল। পাশে তার পরনের পায়জামা পড়ে ছিল। এতে ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তকারীরা তাকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে।

"