কলারোয়ায় আমন ধানের ভাসমান বীজতলা

প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

কলারোয়া (সাতিক্ষীরা) প্রতিনিধি

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়ায় রোপা আমন ধানের আপদ কালিন ভাসমান বীজতলা তৈরি করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের উদ্যেগে এ বীজতলা কপোতাক্ষ নদের পার্শ্ববর্তী এলাকায় সল্পমাত্রার জলাকারের শুরু হয়। উপযুক্ত স্থানে কলাগাছ, শ্যাওলা, বিচুলী ও বাঁশের চটির বিশেষ পদ্ধতিতে খোরদো ব্লক নামে বীজতলা তৈরি করা হয়েছে।

আপদকালিন ফসল বিনষ্ট হওয়া পুনসংযোজনের লক্ষে কিংবা বন্যাদুর্গত এলাকাসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয়তা অনুভবে আগ্রহী কৃষকদের ভালো ফলনের আশায় এ বীজতলা তৈরি করা হচ্ছে। এ বিষয়ে কলারোয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মহসিন আলী জানান, কৃষকদের চাষাবাদ ও ভাল ফলন উপহার দিতে এবং চাষাবাদে সমস্যা লাঘবে বন্যাদুর্গত এলাকায় ফসলে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের বিশেষ সহযোগীতার জন্য এই উদ্বোগ গ্রহণ করা হয়েছে। উপজেলা দেয়াড়ার খোরদো ব্লকে দৈর্ঘ্য-১০-১.২৫ মিটারের ২৮টি বেড তৈরি করে রোপা আমন ধানের আপদ কালিন আদর্শ ৫২-ব্রি জাতের ধানের বীজতলা তৈরি করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সম্পুর্ন বীজতলার চারা রোপনে উপযুক্ত বয়সে উত্তোলন করে তারা কৃষি অফিসে জমা দেবে। সেখান থেকে প্রয়োজন বোধে বন্যাদুর্গতসহ ফসল বিনষ্ট হওয়া চাষীদের মাঝে বিতরণ করা হবে।

এছাড়াও উপজেলা দেয়াড়ার কাশিয়াডাংগা কপোতাক্ষ নদবর্তী এলাকায় ভাসমান সবজি চাষ করা হয়েছে। এ বছর স্বল্প পরিসরে শুরু করা হয়েছে আগামীতে আরো বড় পরিসরে শুরু করা হবে।

"