ধুনটে স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কার

প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আবু সুফিয়ান, ধুনট (বগুড়া)

বগুড়ার ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের অলোয়া গ্রামে স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কার করেছে গ্রামবাসী। দীর্ঘদিন ধরে গ্রামবাসীর জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি সংস্কারে সরকারি কোনো উদ্যোগ না থাকায় তারা সড়কটি সংস্কার করেন।

গ্রামবাসী জানায়, ধুনট-মথুরাপুর পাকা সড়কের অলোয়া বটতলা থেকে পূর্বদিকে প্রায় দেড় কিলোমিটার কাঁচা সড়ক রয়েছে। ধেরুয়াহাটি আদিবাসী স্কুল ও শ্মশান ঘাটে যাতায়াতের অন্যতম সড়ক এটি। এ ছাড়া প্রায় ৩০০ বিঘা জমির ফসল চাষাবাদে কৃষককে এ পথেই চলতে হয়। জমিতে উৎপাদিত ফসল নিয়ে এ পথেই ফিরতে হয় কৃষকদের। মাটির তৈরি কাঁচা সড়কটি বর্ষাকালে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। কিন্তু সরকারিভাবে সড়কটি মেরামতে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এ কারণে একদল গ্রামবাসী স্বেচ্ছাশ্রমে সড়কটি মেরামতের সিদ্ধান্ত নেয়।

গতকাল শনিবার ভোর থেকে গ্রামের কৃষক জামাল ম-ল, জাহাঙ্গীর আলম, মাসুদ রানা, আইয়ুব আলী খান, সুরুত আলী, জুলমাত শেখ, আলতা হোসেন, শওকত, জাহিদুল ইসলামসহ একদল গ্রামবাসী স্বেচ্ছায় মাটি কেটে সড়ক মেরামতের কাজ শুরু করে। দূর থেকে ভ্যানযোগে মাটি এনে রাস্তায় ফেলে সড়কটি মেরামত করা হয়। দিনব্যাপী সড়কটি মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করে তোলা হয়। গ্রামের বৃদ্ধ কৃষক জামাল ম-ল জানান, গ্রামের মানুষের জন্য সড়কটি গুরুত্বপূূর্ণ। কিন্তু যারা ভোট নিয়ে নির্বাচিত হয়, তাদের কাছে সড়কটি গুরুত্ব পায়নি। এ জন্য গ্রামের তরুণদের সঙ্গে তিনি সড়ক মেরামতের কাজ শুরু করেছেন। অলোয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আজাহার আলী বলেন, জনগুরুত্বপূর্ণ গ্রামীণ সড়কটি মাঝে রিংস্লাব দিয়ে পানি প্রবাহের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু বর্ষাকাল এলে প্রতি বছরই সড়কটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেখানে একটি কালভার্ট নির্মাণসহ সড়কটি উঁচু করা প্রয়োজন। মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুনার রশীদ সেলিম বলেন, স্বেচ্ছাশ্রমে অলোয়া গ্রামে সড়ক মেরামতের কথা শুনেছি। গ্রামীণ এ সড়কটি গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রকল্প দিয়ে মেরামত করার উদ্যোগ রয়েছে। এর আগে স্থানীয়ভাবে মাটি না পাওয়ায় মেরামত করা সম্ভব হয়নি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গ্রামবাসীর সড়ক মেরামতের উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে।

 

"