কালীগঞ্জে জমিসংক্রান্ত বিরোধে কারখানায় হামলা

আনসার-নিরাপত্তাকর্মীসহ আহত ১৪

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি

গাজীপুরের কালীগঞ্জে আবুল খায়ের সিরামিক্স ইন্ডা. লি. কারখানার সঙ্গে গ্রামবাসীর জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ওই কারখানায় হামলা করেছে স্থানীয়রা। এতে আনসার সদস্য ও ওই কারখানার নিরাপত্তাকর্মীসহ আহত হয়েছে কমপক্ষে একজন। গত শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল শনিবার দুপুরে কারখানার ইনচার্জ মর্তুজা মাহফুজ বাদী হয়ে বালীগাঁও গ্রামের শাহিন মিয়াকে প্রধান করে ওই গ্রামের ২১ জনের নামে ও অজ্ঞাত আরো ৩০/৩৫ জনকে আসামি করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। অপরদিকে গ্রামবাসীর পক্ষে অভিযোগের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

আহত আনসার সদস্যরা হলেন জাহাঙ্গীর, আবদুল খালেক, আশরাফুল, আরিফুল ইসলাম, আবদুল আজিজ, কায়েম, সামাদ (এপিসি) ও রিয়াজ উদ্দিন (পিসি)। আর কারখানার আহত নিরাপত্তাকর্মীরা হলেন হাফিজুল, জাকির হোসেন, গোলজার হোসেন, শাহেদুল ইসলাম, ইব্রাহিম ও শাওন। আহত সবাইকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলেও কারখানার নিরাপত্তাকর্মী শাওনের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কারখানার ইনচার্জ মর্তুজা মাহফুজ জানান, কারখানার সীমানা বৃদ্ধির স্বার্থে তারা আশেপাশে কিছু জমি ক্রয় করে কারখানা প্রসারের কাজ করছেন। কিন্তু তাদের কারখানার সীমানায় উপজেলার বালীগাঁও গ্রামের সামসুদ্দিনের ছেলে শাহিন মিয়ার কিছু জমি রয়েছে। সেই জমি বর্তমান বাজার মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে ক্রয়ের জন্য কারখানা কর্তৃপক্ষকে নানাভাবে চাপ প্রয়োগ করে আসছে। কর্তৃপক্ষ তাতে রাজি না হওয়ায় বিভিন্নভাবে তাদের হয়রানি করে আসছিল। এরই সূত্র ধরে গত শুক্রবার বিকেলে শাহিনের নেতৃত্বে তার আত্মীয়-স্বজনসহ ৫০/৬০ গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কারাখায় হামলা করে। এ সময় কারখানার দায়িত্বে থাকা আনসার সদস্য ও নিরাপত্তাকর্মীরা বাধা দিলে তাদের কুপিয়ে আহত করে।

শাহিন মিয়া জানান, আবুল খায়ের অবৈধভাবে আমাদের জমি দখল ও বালু ভরাট করছে। এর প্রতিবাদ করলে ওই কারখানার আনসার সদস্য ও নিরাপত্তাকর্মীরা গ্রামবাসীর ওপর হামলা করে। এতে ১০/১২ জন গ্রামবাসী আহত হওয়ার দাবি করেন তিনি।

কালীগঞ্জ থানার ওসি আবু বকর মিয়া জানান, কারখানার পক্ষে অভিযোগ পেয়েছি। গ্রামবাসীর পক্ষে কোনো অভিযোগ পায়নি। তবে অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

"